কাশ্মীর নি’বা’সী বাবা ও ব্রিটিশ মায়ের বি’য়ে ভা’ঙা’র পর কে’ম’ন কে’টে’ছে ক্যাটরিনা কাইফের ছো’ট’বে’লা?

চলতি মাসে ৩৮ বছরে পা রেখেছেন বলিউডের অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ। চলচ্চিত্রজগতের তার যাত্রা শুরু হয়েছিল বুম সিনেমার মাধ্যম দিয়ে। পরবর্তীকালে একের পর এক দুর্দান্ত সিনেমা আমাদের উপহার দিয়েছেন তিনি।

সবকটি সিনেমা বক্স অফিসে দুর্দান্তভাবে সফল হয়। সালমান খানের প্রিয় বান্ধবী হওয়ার জন্য বলিউডে চান্স পাওয়া টা খুব একটা কঠিন হয় নি ঠিকই, কিন্তু তার অনবদ্য অভিনয় এবং চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের জন্য তিনি সকলের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন খুব সহজে। জন্মগতভাবে তিনি এদেশীয় নয়।

Happy birthday Katrina Kaif: 10 rare photos of the actor from her family  album | Bollywood - Hindustan Times

প্রথম থেকে হিন্দি ভাষা অবলম্বন করতে তার বেশ কিছুটা সময় লেগেছিল। ক্যাটরিনা কাইফ প্রকৃতপক্ষে ব্রিটিশ নাগরিক। বাবার নাম মোহাম্মদ কাইফ এবং মায়ের নাম সুজান টারকুন। জন্মগতভাবে তিনি মুসলিম। তার বাবা যিনি কিনা প্রকৃতপক্ষে একজন কাশ্মীরের অধিবাসী ছিলেন, ব্যবসার কারণে তিনি পরবর্তীকালে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নিয়ে নেন।

Do You Know Who Is Katrina Kaif Father? Where Is He Now?

ক্যাটরিনার জন্ম হয় হংকং শহরে। কৈশোরের তিনি ফিরে আসেন ব্রিটেনে, সেখানেই তাঁর স্কুল এবং কলেজ জীবন কাটে। অভিনেত্রী মোট ৬ বোন এবং এক ভাই ছিলেন। কিন্তু অভিনেত্রী যখন ছোট ছিলেন, তখন তার বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ক্যাটরিনা মায়ের কাছেই বড় হন তারপর থেকে।

Katrina Kaif Passport : Thank you so much @utvfilms & katrina kaif! -  Kayzeni

তার মা একজন এনজিও কর্মী ছিলেন তাই ছোটবেলা থেকেই মায়ের সঙ্গে চীন-জাপান ফ্রান্স সুইজারল্যান্ড, পোল্যান্ড জার্মানি বেলজিয়াম সহ বিভিন্ন শহরে ঘুরে বেড়াতেন তিনি। ১৪ বছর বয়সে তিনি প্রথম ফ্যাশন শোতে পার্টিসিপেট করেছিলেন। এরপর বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অভিনয় জগতে প্রবেশ হয়েছিল তার। তারপর কার্যত তাকে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি কোনদিন।