হাইভোল্টেজ নন্দীগ্রামে মহাযুদ্ধের পরিস্থিতি, ১৪৪ ধারা, নাকা চেকিং, হেলিকপ্টারে হচ্ছে নজরদারি

বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের দামামা বেজে গিয়েছে। এই নির্বাচনে বাংলার হাইভোল্টেজ ভোট কেন্দ্র হিসেবে রয়েছে নন্দীগ্রাম। একদিকে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অপরদিকে বিজেপির তরফ থেকে তৃণমূলের প্রাক্তন সদস্য শুভেন্দু অধিকারী সম্মুখ সমরে। বলতে গেলে উভয় তরফেরই অস্তিত্বের সংগ্রাম চলবে এই নির্বাচনে।

দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের আগে তাই সব রকম প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে চাইছে নির্বাচন কমিশন। কারণ এই দফায় নন্দীগ্রামে নির্বাচন সম্পন্ন হবে। আগামী পয়লা এপ্রিল অর্থাৎ আগামীকাল দ্বিতীয় দফার নির্বাচন শুরু হবে। তাই গতকাল রাত থেকেই নন্দীগ্রামের আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি সামাল দিতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। অর্থাৎ আগামীকাল বাজারে কিংবা রাস্তায় কেউ জমায়েত করতে পারবেন না।

আজ থেকেই নন্দীগ্রামে জায়গায় জায়গায় নাকা চেকিং চলছে। রাস্তায় চলতি সব গাড়ি, টোটো, ভ্যান ইত্যাদিতে যাত্রীদের চেকিং করা হচ্ছে। যাত্রীরা অস্ত্রশস্ত্র কিংবা টাকা নিয়ে যাতায়াত করছেন কিনা তার উপর নজর রাখছে নির্বাচন কমিশন। শুধু তাই নয়, রাজ্য পুলিশের প্রতিটি গাড়ির উপর নজর রাখা হচ্ছে। আকাশপথেও হেলিকপ্টার মারফত সমগ্র নন্দীগ্রামের উপর নজর রাখা হচ্ছে।

আজ সকাল থেকেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর সদস্যরা নন্দীগ্রামে জায়গায় জায়গায় নজর রাখছেন। বিশেষ করে তেখালি থেকে রেয়াপাড়া পর্যন্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী বিশেষভাবে নজর রাখছে। নন্দীগ্রামের জায়গায় জায়গায় কোথাও বিএসএফ কোথাও সিআরপিএফের রুটমার্চ চলছে আজ সকাল থেকেই। বলতে গেলে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নজরে রয়েছে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের মোস্ট হাই ভোল্টেজ কেন্দ্র নন্দীগ্রাম।