প্রেমে হাবুডুবু, ২ হাজার কিমি পেরিয়ে প্রেমিকাকে দেখতে এসে থানায় রাত কাটালো প্রেমিক

বর্তমান সমাজে প্রেম এবং ভালোবাসা র আবেগে মত্ত হয়ে যান অনেকেই। বুঝতে পারেন না যে তারা কি করছেন। অনেক সময় এমন হয় যে যে মানুষটাকে আপনি ভালোবাসেন, সে আপনাকে না ভালবাসলেও আপনার ভালোবাসা বিন্দুমাত্র কম হয়না। তাই ভালোবাসার আগে জেনে নিন যে, যাকে ভালোবাসেন সে আপনাকে সমান ভাবে ভালবাসে কিনা। না হলে অসুবিধায় পড়ে যেতে হবে আপনাকে। এমনই একটি ব্যর্থ প্রেমিকের কথা বলবো আজ।

গার্লফ্রেন্ডকে সারপ্রাইজ দেবার জন্য প্রায় ২ হাজার কিলোমিটার ফিরে এসেছিল সে। ছেলেটির বয়স ২১ বছর। সোশ্যাল মিডিয়াতে আলাপ হয় এই মেয়েটির সঙ্গে। মেয়েটির বাড়ি লখনৌ তে। লাইক শেয়ার এবং চ্যাটে কথা বাত্রা, এটুকুতেই পরিচয় হয়েছিল তাদের। খুব বেশি হলে ফোন অথবা ভিডিও কলে কথা হয়েছে তাদের।

এই কথাবার্তার উপর ভরসা করেই হঠাৎ করে জন্মদিনের সারপ্রাইজ দেবার জন্য বেঙ্গালুরু থেকে লখনৌ তে এসে পৌঁছালেন প্রেমিকার বাড়িতে। কলিং বেল বাজাতেই মেয়েটির বাবা-মা এবং সপরিবার হাজির। নিজেকে জামাই বলে পরিচয় দিতে কপালে জুটল চর। তাও একপ্রকার সহ্য হয়ে যেত, কিন্তু প্রেমিকা তাকে অস্বীকার করে। প্রেমিকা জানান যে, সে নাকি তাকে চেনে না।

সঙ্গে সঙ্গে যুবককে নিয়ে যাওয়ায় পুলিশ স্টেশনে। তার হাতে তখনও ধরে রাখা রয়েছে টেডি বিয়ার চকলেট এবং গিফট। যুবকের বিরুদ্ধে যদিও কোন এফআইআর দায়ের করেনি মেয়েটির পরিবার। ভালোবাসা তো দূরের কথা, সারপ্রাইজ দিতে এসে কপালে জুটল পুলিশের মার। উল্টে একটি রাত কাটাতে হলে পুলিশ স্টেশনে। ওই যুবক পুলিশকে জানান যে, গার্লফ্রেন্ডকে সারপ্রাইজ দিতে এসেছে নিজেকেই এতো বড় সারপ্রাইজ পেতে হবে, একথা সত্যি কল্পনাতে ভাবতে পারেনি সে।