রুপোর চেয়ে সোনার গুরুত্ব খোলা বাজারে বেশি হচ্ছে, জেনে নিন কারণ

এবার দেখা যাচ্ছে সোনার থেকে এগিয়ে রয়েছে রুপো। কিসের দিক থেকে সেটা আগে জেনে নেওয়া যাক। দামের দিক থেকে এগিয়ে রুপা। কারণ ৩২% দাম যেখানে সোনার বৃদ্ধি হয়েছে, সেখানেই রুপার দাম বেড়েছে ৪৩%। আর সেই হিসেবেই এখন সোনার থেকে এগিয়ে রুপো। তবে এটা দেখেই যে বিনিয়োগ করা যাবে সেটা কিন্তু নয়। কারণ অনিশ্চিত সময়ে কোনোভাবেই নির্দিষ্ট সম্পদে বিনিয়োগ করা উচিৎ নয়। তাই এবার তুলনা করে দেখা যাক দুই ধাতুর আগামী ভবিষ্যত কেমন? তাছাড়া সোনা দামের দিক থেকে এখন রুপোর থেকে পিছিয়ে থাকলেও কাজের দিক থেকে সর্বদা এগিয়ে।

আর সেটা কেনো? সেটা দেখে নেওয়া যাক।আসলে শিল্প ক্ষেত্রে ব্যবহারের সাথে রুপোর সম্পর্ক থাকায় অর্থনৈতিক বৃদ্ধির সাথে এর আলাদা একটা সম্পর্ক রয়েছে। আসলে যখন অর্থনৈতিক দিক থেকে খারাপ সময় আসবে, তখন সোনার গুরুত্বই সবার ওপরে থাকবে। এদিকে সোনার সর্বদাই অর্থকরী সম্পদ, কিন্তু রুপার যেমন শিল্প ক্ষেত্রে ভূমিকা রয়েছে ঠিকই কিন্তু তার অর্থকরী গুরুত্ব কম।

এদিকে কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের সম্পদ হিসেবে দেখা গেলে রুপার বদলে সোনাকেই প্রাধান্য দেওয়া হয় বেশী। এদিকে আপনি যদি নগদে রুপান্তরিত করতে চান, তাহলে কিন্তু রুপার চেয়ে সোনার দামই বেশী। রুপার তুলনায় সোনাকে সহজেই লগ্নী ও অলংকারের ব্যবহারের জন্য নগদে পরিণত করা যায়।