এবার থেকে র‍্যা’পি’ড টে’স্টে কো’ভি’ড নে’গে’টি’ভ হলেই মিলবে ঘো’রা’ঘু’রি করার সু’যো’গ: রাজ্য সরকার

পর্যটন প্রেমীদের জন্য সুখবর শোনালো রাজ্য সরকার। এবার থেকে আর রাজের কোথাও বেড়াতে যাওয়ার জন্য rt-pcr টেস্ট বাধ্যতামূলক থাকছে না। স্রেফ অ্যান্টিজেন টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও পর্যটন প্রেমীরা বেড়াতে যেতে পারবেন বলে জানিয়ে দিয়েছে রাজ্যের পর্যটন বিভাগ। পর্যটন দপ্তরের তরফ থেকে সম্প্রতি এ রকমই একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে অ্যান্টিজেন টেস্ট রিপোর্টকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

কিছুদিন আগে পর্যন্ত তারাপীঠ যেতে হলেও rt-pcr টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ দেখাতে হতো। তারাপীঠের পাশাপাশি দিঘা, বকখালি থেকে শুরু করে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্রেও বেড়াতে যাওয়ার জন্য এই একই নিয়ম মেনে চলতে হচ্ছিল পর্যটকদের। এতে একদিকে যেমন পর্যটন প্রেমীদের সমস্যা হচ্ছিল, একইভাবে পর্যটন ব্যবসাও মার খাচ্ছিল। rt-pcr টেস্টের খরচের কথা বিবেচনা করে অনেকেই বেড়াতে যেতে চাইছিলেন না। সবদিক বিবেচনা করে নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে পর্যটন বিভাগ।

রাজ্যের পর্যটন সচিব নন্দিনী মুখোপাধ্যায় সব জেলাশাসককে একটি চিঠি মারফত জানিয়েছেন এবার থেকে যদি কোনো পর্যটক অ্যান্টিজেন টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ নিয়েও পর্যটন কেন্দ্রে উপস্থিত হন তাহলে তাকে পর্যটনের অনুমোদন নিতে হবে। রাজ্যের পর্যটন ব্যবস্থাকে আবার পুরনো স্থানে ফিরিয়ে আনার জন্য। এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়।

তবে ওই নির্দেশিকায় সাপ উল্লেখ করা হয়েছে যে পর্যটনের ক্ষেত্রে হোটেলের মালিক এবং পর্যটকদের করোনা সংক্রান্ত সমস্ত বিধি-নিষেধ মেনে চলতে হবে। র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ভিত্তিতেই পর্যটকদের আসার অনুমতি দেওয়া হোক, সম্প্রতি এমনটাই দাবি তুলেছিলেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। পর্যটন ব্যবসায়ীদের সেই দাবি মেনে নিল রাজ্য সরকার। রাজ্যের এই সিদ্ধান্তের ফলে হাসি ফুটেছে পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে জড়িতদের।