বেঙ্গালুরু যাওয়া রাজধানী এক্সপ্রেসে আগুন, চালকের উপস্হিত বুদ্ধিতে বাঁচলো যাত্রীদের প্রাণ

বছরের একেবারে শুরুর দিকেই দুর্ঘটনার কবলে পড়লো রাজধানী এক্সপ্রেস। ট্রেন চালু থাকা অবস্থাতেই ইঞ্জিনে আগুন লেগে যায়। তবে চালকের তৎপরতায় অবশ্য বড়সড় দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হয়েছে। রাজধানী এক্সপ্রেসের চালক সঠিক সময়ে ইঞ্জিন থেকে নির্গত আগুনের ধোঁয়া দেখতে পেয়ে ট্রেনটি থামিয়ে দেন। ট্রেনে ওই সময় অনেক যাত্রী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। সঠিক সময় দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হওয়াতে স্বভাবতই প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তারা।

সূত্রের খবর, রবিবার রাতে দিল্লি থেকে বেঙ্গালুরুগামী রাজধানী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনে আচমকাই আগুন লেগে যায়। দক্ষিণ সেন্ট্রাল রেলওয়ের প্রধান আধিকারিক সিএইচ রাকেশ এ প্রসঙ্গে জানালেন, গতকাল রাত ন’টা নাগাদ তেলাঙ্গানার ভিকারাবাদ জেলার নাওয়ান্ডগি রেল স্টেশন পার করার সময়রাজধানী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেন ট্রেন চালক।

ইঞ্জিন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেই ট্রেনটিকে থামিয়ে দেন রাজধানী এক্সপ্রেসের চালক। এরপর ইঞ্জিন পরীক্ষা করতে গিয়ে দেখা যায় রাজধানী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের একাংশ থেকে আগুনের ফুলকি বের হচ্ছে। এরপর যাত্রী সুরক্ষার্থে ট্রেনের ইঞ্জিনটিকে ট্রেন থেকে আলাদা করে দেওয়া হয়। এরপর দমকলের প্রচেষ্টায় অবশ্য কিছুক্ষণের মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়।

কি কারনে রাজধানী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনে হঠাৎ করে আগুন লাগলো তা এখনো পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি বলেই জানাচ্ছেন রেলওয়ে আধিকারিকরা। তবে ঘটনার জেরে অবশ্য কোনো যাত্রী আহত হননি বলেই জানানো হয়েছে। এরপর অবশ্য নাওয়ান্ডগি স্টেশনে অন্য একটি ইঞ্জিন পাঠানো হয়েছিল। সেই ইঞ্জিনের সঙ্গেই রাজধানী এক্সপ্রেস জুড়ে তারপর তা নির্দিষ্ট গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।