বাংলায় বেসরকারি বাস ভা’ড়া নিয়ে বড়ো খবর, জেনে নিন

লকডাউন পর্বে যাতায়াত পরিষেবা সর্বাপেক্ষা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ট্রামে, বাসে, ট্রেনে যাতায়াত একপ্রকার বন্ধ। গতবছর বেশ কয়েক মাসের টানা লকডাউন পর্বের পর থেকে যাও বা ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছিল দেশ, করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ে এসে আবার সবকিছু যেন থমকে গিয়েছে। একইভাবে থমকে গিয়েছে ট্রাম বাস-ট্রেনের যাতায়াত।

করোনার দ্বিতীয় পর্যায় সামাল দেওয়ার জন্য এই মুহূর্তে সারা রাজ্য জুড়ে এক মাসেরও বেশি সময় জুড়ে লকডাউন চালু করা হয়েছে। যার ফলে বাসে-ট্রামে যাতায়াত বন্ধ। শুধু স্পেশাল ট্রেন চলাচল করছে। বেসরকারি বাস পরিষেবা বলতে গেলে এক প্রকার বন্ধ। বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু হওয়া নিয়েই কার্যত গতকাল বাস মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পর দফতরের দায়িত্ব গ্রহণের পর এই প্রথম বার বিভিন্ন সংগঠনের মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করলেন ফিরহাদ হাকিম। এই বৈঠকে বাস মালিকরা ভাড়া বৃদ্ধির দাবি তোলেন। বাস ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে বিশেষজ্ঞ আমলাদের সঙ্গে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেই তবেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। অতএব আপাতত বেসরকারি বাসের ভাড়া বৃদ্ধি পাচ্ছে কিনা তা নির্ভর করছে বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠকের উপর।

বেসরকারী বাস সংস্থার মালিকেরা অবশ্য বাস ভাড়া বৃদ্ধির দাবি নিয়ে সরব হয়েছেন বহুদিন আগেই। এর আগেও লকডাউনের মধ্যেও তারা বাস ভাড়া বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন। বাস ভাড়া বৃদ্ধির পাশাপাশি ট্যাক্সিচালকেরাও ট্যাক্সি ভাড়া বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছিলেন সেই সময়।