বাবার প্রেম শ্রীদেবীর সাথে, লজ্জায় স্কুলে যেতে চাইনি, হয়েছি হাসির খোরাক: অর্জুন কাপুর

কিছুদিন আগেই অভিনেতা অর্জুন কাপুর করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, সেকথা সোশ্যাল মিডিয়ায় সবাইকে জানিয়েছিলেন। তবে এখন তিনি সুস্থ রয়েছেন। অর্জুন কাপুর অনেক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তিনি কখনোই অভিনেত্রী শ্রীদেবীকে কখনোই নিজের মা হিসাবে মেনে নেয়নি। এমন অনেক স্মৃতি রয়েছে যা কোনদিন ভুলতে পারবেনা অভিনেতা অর্জুন। তার বাবার সাথে অভিনেত্রী শ্রীদেবীর সম্পর্কের কারণে তার ও তার বোনের উপর, এছাড়া তার মায়ের ওপর খুব বাজে প্রভাব পড়েছিল যা ভোলার নয়।

সম্প্রতি আরও একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেতা অর্জুন কাপুরকে বলতে দেখা গেল, তার বাবার সাথে অভিনেত্রী শ্রীদেবীর সম্পর্ক থাকার কারণে তার ও তার বোনের স্কুল জীবনের উপর খুবই বাজে প্রভাব পড়েছিল। স্কুলে গেলেই তাকে শুনতে হতো নানা ধরনের ব্যঙ্গ বিদ্রুপ এবং বাবার সম্বন্ধে বাজে কথা।

যা শুনতে একদমই পছন্দ করতেননা অভিনেতা অর্জুন। তাই তিনি এই কারণে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন, বাড়িতে বাধ্য হয়ে বন্দী হয়ে থাকতে হয়েছিল তাকে।অভিনেতা অর্জুন আরো বলেন, শুধু তার ওপরেই নয় তার মা মোনা কাপুরের উপরেও খুব বাজে প্রভাব পড়েছিল এই সম্পর্কে দরুন। তার মাকেও নানা ধরনের বাজে কথা শুনতে হত অকারনে। অনেকে তার মা মোনা কাপুরকে বলতেন নিজের শরীরের উপর যত্ন নাও পার্লারে গিয়ে রূপচর্চা করো, নিজের স্বামীকে ধরে রাখার চেষ্টা করো, এইভাবে অন্য মেয়ের হাতে নিজের স্বামীকে দিয়ে দিওনা।

কিন্তু পরে আমার মা এই সম্পর্ক থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়, কারণ বাবার সাথে অভিনেত্রী শ্রীদেবীর সম্পর্ক থাকাকালীনই অভিনেত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিলেন। তাই আমার মা অভিনেত্রীকে বাঁচানোর জন্য এই ত্যাগ স্বীকার করেছিলেন। আমাদেরকে নিয়ে আলাদা জায়গায় চলে গিয়েছিলেন কিন্তু আমাদের বাবা আমাদের কথা একটুও ভাবেনি। আমাদের উপর কি প্রভাব পড়বে, এইসমস্ত বিষয় উপেক্ষা করে তিনি শ্রীদেবীর কাছেই চলে গিয়েছিলেন।