সব কিছু তৈ’রি, কা’র্ড’ও ছা’পা হ’য়ে গিয়েছে! তবুও বি’য়ে বা’তি’ল করেন সলমান, জে’নে নি’ন কারণ

বলিউড অভিনেতা সলমন খানের প্রেমে পাগল মহিলার সংখ্যা এদেশে অনেক আছে। এমনকি তাঁর জীবনে প্রেমিকার তালিকাটাও নেহাত কম লম্বা নয়। তবুও ৫৫ পার করেও তিনি ‘সিঙ্গল’। বলিউডের ‘মোস্ট এলিজেবল ব্যাচেলর’ তিনি। আপনি কি জানেন এই সলমন ও একদিন বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছিলেন, এমনকি সল্লুর বিয়ের কার্ডও নাকি ছাপা হয়ে গিয়েছিল। আর একথা খোলসা করেছিলেন সলমনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু, প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদয়ালা।

সাজিদ নাদিয়াদয়ালা দুবছর আগে কপিল শর্মার শো-তে এসে সলমনের বিয়ের পরিকল্পনার কথা ফাঁস করেছিলেন। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন করে উঠে এসেছে সেই ভিডিয়ো। শোতে এসে সাজিদ বলেন, ”সালটা ১৯৯৯, একবার সলমন আমাকে বলল, চলো একসঙ্গে বিয়ে করে নেওয়া যাক। সেসময় সলমনের একজন বান্ধবী ছিল, আমাকে মেয়ে খুঁজতে হয়েছিল। আমি মা-বাবাকে পাত্রী খুঁজতে বলি। ঠিক হয়, ১৮ নভেম্বর সলমনের বাবার জন্মদিনে দুজনে একসঙ্গে বিয়ে করব।

সবকিছু ঠিক হয়ে গিয়েছিল। এমনকি কার্ড ছাপা ও বিলি করাও হয়ে গিয়েছিল। হঠাৎই ৫-৬দিন আগে সলমন বলে আমি বিয়ে করব না। আমার ইচ্ছা করছে না। সলমন অবশ্য আমার বিয়েতে হাজির হয়েছিল। এসে আমার কানে ফিস ফিস করে বলল, বাইরে গাড়ি দাঁড়িয়ে আছে, নিয়ে পালিয়ে যাও।”

প্রসঙ্গত,সঙ্গীতা বিজলানির সঙ্গে বিয়ের ঠিক হয়েছিল সলমনের। বিয়ের কার্ডও ছাপা হয়ে যায়। তবে পরে সেই বিয়ে ভেঙে দেন সল্লু। আবার শোনা যায় সঙ্গীতার প্রতারণার কারণেই বিয়ে ভেঙেছিলেন সলমন।