কাউকে বলতে না চাইলেও এবার দু’র্ব’ল’তা’র কথা স্বী’কা’র করলেন রচনা ব্যানার্জি, জেনে নিন

বাংলা চলচ্চিত্র জগতের সুন্দরী অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। টলিউডের পাশাপাশি বলিউড এবং দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও নায়িকা নিজের ছাপ রেখেছেন। বর্তমানে বড় পর্দা থেকে বিদায় নিয়ে ছোটপর্দার জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো দিদি নাম্বার ওয়ান সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। দীর্ঘ প্রায় 10 বছর ধরে বাংলায় মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে গিয়েছেন সকলের প্রিয় দিদি।

সেই রচনা ব্যানার্জীর দুর্বলতা কি জানেন? এতদিন রচনা কে তার দুর্বলতা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি তার জবাবে বলতেন তাঁর ছেলে প্রমীলই হল তাঁর একমাত্র দুর্বলতা। প্রমীলের জন্যই বড় পর্দা থেকে ছুটি নিয়ে ছোটপর্দায় এসেছেন তিনি। নিজের ফিল্মী কেরিয়ার বিসর্জন দিয়েছেন শুধুমাত্র ছেলেকে বড় করে তুলবেন বলে।

তবে সম্প্রতি রচনা আরো একটি দূর্বলতার কথা প্রকাশ্যে এলো। যা দেখে এবং শুনে রীতিমতো চমকে গেলেন নেটিজেনরা। জন্মদিন উপলক্ষে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন রচনা। যেখানে তার সামনের টেবিলে রাখা ছিল তার দুর্বলতা! কি এমন দুর্বলতা রয়েছে রচনার? অভিনেত্রীর দুর্বলতা হলো মিষ্টি! ডায়েট সচেতন, স্বাস্থ্য সম্বন্ধে সচেতন অভিনেত্রী মিষ্টি দেখলে দুর্বল হয়ে পড়েন!

রচনা তার স্বাস্থ্য সম্পর্কে ভীষণভাবে সচেতন। ৪৬ বছর বয়সে এসেও খুব সুন্দর ভাবে নিজের ফিগার মেনটেন করে রেখেছেন তিনি। তিনি কি না মিষ্টি দেখলে নিজেকে ঠিক রাখতে পারেন না! কড়া ডায়েটে থেকে পেঁপের রস, করলার রস খেতে হয় যাকে, জন্মদিন উপলক্ষে যদি ডায়েট একটু মিষ্টি যোগ হয়, তাতে তার খুব বেশি কিছু এসে যাবে না।