মানুষ না হলেও ও’রা সবই বোঝে, মাহুতের শে’ষ’যা’ত্রা’য় হাজির হাতি, জানালো শ্র’দ্ধা, দেখুন ভিডিও

মালিকের সঙ্গে পোষ্যের সম্পর্ক আদতে পিতার সঙ্গে সন্তানের সম্পর্ক তুলনায় কোনও অংশে কম নয়। একজন পিতা যেমন নিজের সন্তানকে সব রকম ভাবে আগলে রাখেন, প্রতিপালন করেন, পোষ্যের মালিকও ঠিক সেভাবেই পোষ্যের যত্ন নেন এবং তাকে পালন করেন। তাইতো মালিকের সঙ্গে বিচ্ছেদে পোষ্যেরও কষ্ট হয় বৈকি। এরকম একটি দৃশ্যের সাক্ষী থাকলো কেরলের কোট্টায়াম গ্রাম। এবং ভিডিও মারফত সেই দৃশ্যের সাক্ষী থাকলেন নেটদুনিয়ায় বাসিন্দারা।

কেরলের কোট্টায়াম গ্রামের বাসিন্দা দামোদরণ নায়ার। ৬০ বছর বয়সি এই ব্যক্তি বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই ক্যান্সারে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি পেশায় একজন মাহুত। ২৫ বছর বয়সী পলট্টু ব্রহ্মদাতন নামের অতিকায় একটি হাতির মালিক তিনি। মৃত্যুশয্যায় তিনি যখন মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন তখন শেষবারের মতো পলট্টুকে দুচোখ ভরে দেখার সাধ জাগে তার মনে।

এখানে ক্লিক করে দেখুন ভিডিও

সেইমতো পলট্টুকে যখন তার কাছে নিয়ে আসা হয়, সে তখন শেষবারের মতো নিজের শুঁড় দিয়ে মৃত্যুশয্যায় শায়িত মালিককে ছুঁয়ে দেয়। তারপর মালিকের সেখানে ভঙ্গিতেই মালিককে প্রণাম করে শেষ বিদায় জানায় পলট্টু! পোষ্যেরা নির্বাক হতে পারে, তবে তারা নির্বোধ নয়। এই ভিডিওটি তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। দেখুন সেই ভিডিও যা নেট দুনিয়ায় শোরগোল ফেলে দিয়েছে।