নতুন রূপে এলেও সবই ফিকে, দেখুন দুরদর্শনের সবথেকে পুরানো মহালয়া, নিজে থেকেই মনে আসবে ভক্তি

মহালয়ার কিছুদিন আগে থেকেই এখন বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের মহালয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়। মহালয়া এর এই আপামর বাঙালির মনে পূজোর ঘন্টা বাজতে শুরু করে। তবে চিরকাল কালার টিভির এত চ্যানেলের বিশালতা ছিল না। তখন মহালায়া মানে ভোরবেলা রেডিও সামনে বসে পড়া। তখন রেডিওর পাশাপাশি ভোর বেলা উঠার আরো একটি আগ্রহ ছিল বাঙালির মধ্যে তা হল দূরদর্শনের মহিষাসুরমর্দিনী দেখার। তখন চ্যানেল বলতে ছিল ওই একটি। তাই টিভি দেখার প্রতি একটি আলাদা আকর্ষণ ছিল সকলের।

এখন বর্তমানে ইন্টারনেট দুনিয়ার রমরমার ফলে টিভির প্রতি মানুষের আকর্ষণ অনেকটাই কমে গেছে। তার ওপর একাধিক চ্যানেলের বিভিন্ন প্রকারের মহালায়া দেখার মধ্যে আর কোন উত্তেজনা অনুভব করে না বাঙালি।সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমের দ্বারা ২০০৪ সালের সেই মহালয়ার একটি ভিডিও পরিষ্কার এবং গঠনমূলকভাবে বাড়ানো হয়েছে।এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করার পাশাপাশি বাঙ্গালীদের মনে আবারও সেই পুরনো মহালয় আর উত্তেজনা ফিরিয়ে নিয়ে আসার চেষ্টা করা হয়েছে।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন:https://www.facebook.com/watch/?v=757960304623938&extid=yH30ffUpoLMBF5rg

সম্প্রতি জনপ্রিয় একজন ব্লগার নিজে সোশ্যাল মিডিয়া পেজে পুরনো দিনের এই মহিষাসুরমর্দিনীর ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। এক ঘণ্টার এই ভিডিওটির মাধ্যমে পুরনো যুগের কিছু দৃশ্য কে তুলে ধরা হয়েছে সকলের সামনে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঝড়ের গতিতে ভিডিওটিতে লাইক কমেন্ট শেয়ার করেছে। ভিডিওটি পুরনো হলেও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার ফলে আবার সকলের মধ্যে নস্টালজিয়া মনোভাব তৈরি হয়েছে।