পাকিস্তান থেকে প্রার্থী আনা হলেও জেতাবো, বিস্ফোরক আরাবুল

একুশের নির্বাচনের জন্য সম্প্রতি প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে রাজ্য শাসক দল।এই প্রার্থী তালিকা নিয়ে তৃণমূল দলের অভ্যন্তরেই নানান বিক্ষোভ দেখা দিয়েছে। উক্ত তালিকায় স্থান না পেয়ে অনেকেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন ভাঙ্গড়ের তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলাম। আরাবুলের বদলে ভাঙ্গড়ের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে দলের পছন্দ রেজাউল করিমকে।

প্রথম থেকেই দলের এমন সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করে আসছিলেন আরাবুল। তার দলবদলের সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছিল। তবে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শেষমেষ দলেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আরাবুল। আরাবুলের মানভঞ্জন করতে তার বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন দলের নবনির্বাচিত প্রার্থী রেজাউল করিম। আরাবুলের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকও করেছেন তিনি।

এই বৈঠকের পরেই সুর নরম করেছেন আরাবুল। তিনি জানিয়েছেন দলের তরফ থেকে যাকে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে, তার হয়েই প্রচারকার্য চালাবেন তিনি। তবে বৃহস্পতিবার প্রচারকার্য চালাতে গিয়ে আবার উল্টো সুর ধরলেন আরাবুল ইসলাম। ভাঙ্গড়ের নবনির্বাচিত প্রার্থীকে “বহিরাগত” বলে উল্লেখ করলেন তিনি। এভাবেই নরমে-গরমে দলের সিদ্ধান্তের প্রতি নিজের অসন্তোষ ব্যক্ত করলেন আরাবুল।

এখানেই শেষ নয়, রেজাউল করিমকে নিশানা করে এদিন তিনি বলেন, দল আগেরবারও এক বহিরাগতকে প্রার্থী করেছিল। গত পাঁচ বছরে যার টিকিও পাওয়া যায়নি। এবারেও এক বহিরাগতকে প্রার্থী করা হয়েছে। আগামী পাঁচ বছরে তার টিকিও পাওয়া যাবে না। তবে দল পাকিস্তান থেকে কাউকে নিয়ে এলেও তাকে জেতানোর জন্য সম্পূর্ণ প্রচেষ্টা করবেন তিনি। দলের প্রতি এভাবেই আনুগত্য বজায় রাখতে চান আরাবুল।