সব জল্পনার অবসান, বিজেপি জিতলে কে হবেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী? বলেই দিলেন দিলীপ ঘোষ

বিগত বেশ কয়েকমাস ধরেই একুশের বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে উত্তাল রাজ্যের রাজনীতি। তৃণমূল এবং বিজেপিই কার্যত এই লড়াইয়ে সম্মুখ সমরে রয়েছে। বাংলার মসনদ শেষমেষ কোন দলের দখলে যাবে, সেই নিয়ে বাংলার রাজনীতিতে জোর চর্চা চলছে। পাশাপাশি, আরো একটি প্রশ্ন রয়েছে সাধারণের মনে। একুশের লড়াইয়ে তৃণমূলকে হারিয়ে যদি বিজেপি বাংলার মসনদ দখল করে তাহলে সেই মসনদে বসবেন কে?

বাংলায় কার্যত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বেই ভোটের লড়াই লড়ছে বিজেপি। বঙ্গ বিজেপি শিবিরে এই মুহূর্তে মুখ্যমন্ত্রীর পদপ্রার্থী হিসেবে কারোর নাম নেওয়া হয়নি। বিজেপি শিবিরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে একুশের লড়াইয়ে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে দলের তরফেই সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হবে। তবুও বিজেপির তরফের মুখ্যমন্ত্রীর পদপ্রার্থী কে হবেন সেই নিয়ে রাজ্যে জোর তরজা চলছে।

এই তরজায় নাম উঠেছে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। তবে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দিলীপের গ্রহণীয়তা নিয়েও বিভিন্ন মহলে উঠেছে প্রশ্ন। তবে সেই বিতর্ক আরো উস্কে দিলেন দিলীপ ঘোষ নিজেই। সম্প্রতি একটি সংবাদ সংস্থার কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, বাংলায় বিজেপির তরফ নির্বাচিত কোনো বিধায়ককেই যে মুখ্যমন্ত্রী করা হবে এমনটা নয়।

তার এই মন্তব্য শুনে বিভিন্ন মহলে জোর চর্চা চলছে। প্রসঙ্গত চলতি নির্বাচনে দলের তরফের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াননি দিলীপ ঘোষ। অতএব এমন মন্তব্য করে কার্যত তিনি বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে ভবিষ্যতে তার দায়িত্ব পাওয়ার সম্ভাবনাও উস্কে দিলেন। অবশ্য এই বিষয়ে এখনই স্পষ্ট করে কিছু বলতে নারাজ বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তবে তিনি তার মন্তব্য মারফত ইংগিতপূর্ণ আভাস দিলেন, এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক শিবির।