ক’রোনার প্রভাবে ক্ষতি হচ্ছে মস্তিষ্কের কোষ, গবেষণায় উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

বিশ্বজুড়ে এই মুহূর্তে ত্রাসের অপর নাম করোনা। বিজ্ঞানীরাও তাদের ধ্যান জ্ঞান একত্রিত করে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস নিয়েই গবেষণা চালাচ্ছেন। এবার গবেষণার ফলে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে এক ভয়ঙ্কর তথ্য উঠে হলো। এতদিন গবেষকদের দাবি ছিল, মানব শরীরে করোনাভাইরাসের প্রধান আক্রমণ স্থল হলো ফুসফুস। তবে নতুন গবেষণার রিপোর্ট অনুযায়ী, ফুসফুসের পাশাপাশি মস্তিষ্কেও আক্রমণ চালাচ্ছে করোনা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের  গবেষকেরা করোনা ভাইরাস সম্পর্কে গবেষণা চালাচ্ছিলেন‌ সম্প্রতি তারা তাদের গবেষণা রিপোর্ট পেশ করেছেন। রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, ফুসফুসের পাশাপাশি করোনাভাইরাস মস্তিষ্কে পৌঁছে মস্তিষ্কের কোশের মধ্যে প্রবেশ করে দ্রুত সংখ্যা বৃদ্ধি করছে। ফলে মস্তিষ্কের কোশে অক্সিজেন পৌঁছতে পারেনা। ধীরে ধীরে কোশগুলি তাদের কার্য ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, করোনাভাইরাসের এই বৈশিষ্ট্যটি অনেকটা জিকা ভাইরাসের মত। তবে জিকা ভাইরাসের থেকেও মারাত্মক ভাবে মস্তিষ্কের ক্ষতিসাধন করছে করোনা। ইঁদুরের ওপর পরীক্ষা চালিয়ে তারা দেখেছেন, সার্স কভ-২ আরএনএ ভাইরাস এমনভাবে মস্তিষ্কের কোশে বংশ বিস্তার করছে, যার ফলে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যাচ্ছে। অক্সিজেনের অভাবে কোশগুলি ধীরে ধীরে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

গবেষকদের দাবি, ফুসফুসের কোশগুলিকে যেভাবে আক্রমণ করছে করোনাভাইরাস, একইভাবে মস্তিষ্কের কোশেও আক্রমণ চালাচ্ছে। মস্তিষ্কের কোষ বিনষ্ট হওয়ার ফলেই স্বাদ এবং গন্ধ নেওয়ার ক্ষমতা হারাচ্ছেন রোগী। এটাই করোনা আক্রমণের প্রাথমিক লক্ষণ। এরপর ধীরে ধীরে ব্রেন ড্যামেজ হতে শুরু করে।