আমার অন্যায়ের শাস্তি দেবেন না মমতাকে, জনসভায় ফের ক্ষমা প্রার্থনা অনুব্রতর

ভরা জনসভায় দাঁড়িয়ে ফের সাধারণ মানুষের কাছে ক্ষমা চাইলেন অনুব্রত মণ্ডল। বীরভূমের এই জেলা সভাপতি জনসভায় দাঁড়িয়ে জোড়হাত করে ক্ষমা ভিক্ষা চাইলেন মানুষের কাছ থেকে।সাথে তিনি স্পষ্ট বার্তা দিলেন তার দোষের শাস্তি যেন কোনোভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে না দেওয়া হয়। কারণ এই ভোটটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজের। গতকাল সোমবার বীরভূমের আমোদপুর জনসভায় দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপরে বামফ্রন্ট সরকারের কড়া অত্যাচারের কথা তুলে ধরেন তিনি।

কিভাবে রাইটার্স বিল্ডিং থেকে চুলের মুঠি ধরে বের করে দেওয়া হয় তাকে। এইসব মনে করিয়ে দেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি আরো বলেন এই বাংলাকে গড়ে তোলার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিনরাত পরিশ্রম বিরোধীদলের তরফ থেকে লাঞ্ছনা-বঞ্চনা সহ্য করা। একটা ২৬ দিন অনশন করা তারপরে ও বিরোধীদের অত্যাচার।

তাই তিনি সবাই দাঁড়িয়ে সমস্ত জনসাধারণের কাছে হাতজোড় করে দাবি জানায়, আমি কেবল মাত্র একটা কথাই বলতে এসেছি বেশি কথা বলতে নয়। আপনারা বিজেপিকে ভোট দেবেন না। কারণ এই ভোট কেবলমাত্র মমতা ব্যানার্জির ভোট তৃণমূলের ভোট। এই ভোটে অন্য কারোর অধিকার নেই।তাই আমি যদি কোন ভুল করে থাকি সেই শাস্তি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেবেন না।