করোনা নিয়ে কোনও রসিকতা করবেন না, মৃত্যুর আগে বার্তা করোনা আক্রান্ত ডাক্তারের

করোনা নিয়ে কোনও রসিকতা করবেন না

ছবিতে দেখা যাচ্ছে মাস্ক পরিহিত একজন রোগী বেডে শুয়ে আছে, কিন্তু পরে জানা গেছে সে কিন্তু একজন ডাক্তার। আর তিনি এখন বেডে শুয়ে থাকার কারণ একটাই, তাকেও বসিয়েছে করোনার থাবা। তো তিনি অনেক আগেই ভর্তি ছিল হাসপাতালে। কিন্তু যখন সে দেখতে পাচ্ছিল ও বুঝতে পাচ্ছিল তার শারিরীক পরিস্থিতি একেবারে ভালোর দিকে না, সে তখন তার অবস্থার কথা ও করোনা সম্পর্কীয় কিছু তথ্য বিশ্বকে দিয়ে গেছে।

তিনিপাকিস্তানের এক জন কম বয়সের ডাক্তার। তার নাম উসামা রিয়াজ। তার বয়স ২৬ বছর। তিনি অনেক দিন থেকেই লড়াই করে যাচ্ছিল করোনার সাথে, কিন্তু শেষ জয় কিন্তু করোনারই হল। তো তিনি যখন নিজের পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত হয়েছিলেন, তখন তিনি তার শেষ কর্তব্য করে গিয়েছেন। তিনি জানতেন তিনি মারা যাবেন, তখন তিনি নিজের মোবাইলেই একটি ভিডিও বানিয়ে যান, এই করোনা সতর্কতায়।

তিনি পাকিস্তানেই মারা যান। আসলে তিনি ইরাক, ইরান থেকে আসা মানুষদের চিকিৎসা করেই আক্রান্ত হয়ে যান। তার পরে আর কোনো ধরনের উপশম তার দেহে দেখা যায় না। মানুষকে সতর্ক করে যান, মানুষ যেনো কোনোভাবেই এই করোনাকে ছেলেখেলা না মনে করে। তিনি সেই ভিডিওতে জানায়, করোনা সতর্কতা। তিনি ভিডিওটি শুরু করেন এই বলে যে, তার আজ শরীর একটু ভালো। তাই সে ভিডিওটি বানাচ্ছে।

তিনি জানায় করোনা নিয়ে কোনোভাবেই রসিকতা করা যাবে না, আমাদের মাথায় রাখতে হবে আমাদের নিজেদের কথা, দেশ বাসীর কথা, পরিবারের কথা। তাই মনে রাখবেন করোনা কিন্তু কোনোভাবেই রসিকতার বষয় না। এটা নিয়ে এখন সবাইকে সিরিয়াস থাকতে বলা হছে। এখন সারা বিশ্বে অনেক মানুষ করোনাতে আক্রান্ত, সবাই সেড়ে উঠবে কিনা, তা জানা নেই। কিন্তু আপনারা সবাই সজাগ, সতর্ক থাকবেন।