জন্মদিনের দিন এই কয়েকটি কা’জ করলে আ’ন’ন্দে কা’ট’বে সা’রা বছর

জন্মদিনে এমন একটি দিন যা প্রত্যেকটি মানুষের কাছে খুবই স্পেশাল। জন্মদিনের এই দিনটি বড় থেকে ছোট সকলেই নিজের মতো করে পালন করতে চান। আরে জ্যোতিষ মতে কিভাবে জন্মদিন পালন করা উচিত তা একবার দেখে নেওয়া যাক আজকের এই প্রতিবেদনের দ্বারা। জন্মদিনে যদি এই কাজগুলি আপনি করেন তাহলে আপনার জীবনে সুখ এবং সমৃদ্ধি কখনো কমে যাবে না। জন্মদিনের সকালে উঠেই সূর্য দেবতা কে প্রণাম করুন সেদিন। সূর্যদেবকে উদ্দেশ্য করে অর্ঘ্য নিবেদন করে তবেই দিনটি শুরু করুন। এরপর ইষ্ট দেবতা কে স্মরণ করুন এবং ধ্যান করুন।

জন্মদিনে নিজে আনন্দ করার পাশাপাশি গরিব-দুঃখীদের সঙ্গে আনন্দ ভাগ করে নিন। দরিদ্র নারায়ন কে খাদ্য দান করে তাদের আশীর্বাদ গ্রহণ করুন।আপনার রাশি অনুসারে সুতো হাতে পড়ুন অথবা কোন রত্ন ধারণ করুন। কোন ধাতুর তৈরি ব্রেসলেট ধারণ করতে পারেন। এটি যদি বড় দাদা অথবা দিদি আপনাকে দেয় তাহলে তো খুবই ভালো হয়।

জীবনে ভালো সময়ের পাশাপাশি খারাপ সময় আসবেই। তবে পজিটিভ এনার্জি সেই খারাপ সময়ের প্রভাবকে খর্ব করতে সাহায্য করে। নিজের চারপাশের পজিটিভ এনার্জি বাড়ানোর জন্য জন্মদিনের রক্তদান করতে পারলে খুব ভালো ফল পাবেন আপনি।

আপনার জন্ম ছকে যে সমস্ত গ্রহ খারাপ অবস্থানে রয়েছে, তাদের আরাধনা করুন জন্মদিনে। এর ফলে গ্রহের অশুভ প্রভাব অনেকটা কমে যেতে পারে। জন্মদিনে অবশ্যই বাড়িতে শিবলিঙ্গের রুদ্রাভিষেক করুন। ৩ ঘণ্টা ধরে রুদ্রাভিষেক করলে আপনার মন পরিশুদ্ধ হবে এবং খারাপ সময় কেটে যাবে।

জন্মদিনে পশু পাখিদের খাবার দিন। আপনার সঞ্জিত অর্থ থেকে কিছু টাকা ঠাকুরের সামনে রেখে দিন। পরে সেই টাকাটি গোশালায় দান করে দিতে পারেন। এইভাবে আপনি আপনার খারাপ সময় কে ভালো সময়তে পরিবর্তন করে দিতে পারেন।