বন্ধ হয়েছে রক্তক্ষরণ, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে আশার আলো দেখছেন চিকিৎসকরা

সত্যি কিছুটা হলেও এবার যেনো স্বস্তি পাওয়া গেলো, কারণ যবে থেকে আমাদের প্রিয় ফেলুদা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় অসুস্থ হয়ে পরেছিলেন তবে থেকেই সবার মন খারাপ, আর এটা হওয়াটাও স্বাভাবিক। কিন্তু এবার মন ভালো হওয়ার খবর শোনালো ডাক্তারেরা। আমাদের প্রিয় অভিনেতা লড়ে চলেছেন, আর তার অস্ত্র প্রচারে আভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ বন্ধ করা গেছে। একতা সময় ডাক্তারেরা জানিয়েছেন সৌমিত্র বাবুর দেহের হিমোগ্লোবিন প্রচুর প্রমাণে কমে যাচ্ছিল।

যার ফলে চিন্তা আরও বেড়ে যাচ্ছিল। কিন্তু এখন ডাক্তারেরা অস্ত্রপ্রচার করে অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ বন্ধ করেছে, যার ফলে তার শারীরিক অবস্থা আগের থেকে ভালো হয়েছে। আমাদের প্রিয় অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় যার চিকিৎসার দায়িত্বে আছে ডঃ অরিন্দম কর। তিনি গতকাল সোমবার রাত ১০ টার সময় এই খবর জানিয়েছে যে সৌমিত্রবাবুর আর রক্তক্ষরণ হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ তার শারীরিক অবস্থা আগের থেকে অনেকটাই ভালো। একটা সময় তার দেহের হিমোগ্লোবিন কম হয়ে যাওয়ার কারণেই সমস্যার মধ্যে পরতে হয়। কিন্তু তার অঙ্গপ্রত্যঙ্গ আমরা আগের মতোই সচল করার জন্য বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করব।

বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় গত ৬ অক্টোবর হাসপাতালে ভর্তি হন, করোনা আক্রান্তয়। তার পর থেকেই তার শারীরিক অবনতি ঘটতে থাকে।এতদিন ভালো থাকলেও, তিনি গত সোমবার থেকে একেবারেই অবচেতন অবস্থার মধ্যেই আছেন। তাই তার ডঃ অরিন্দম কর জানায়, গত ২৬ দিন থেকে সৌমিত্র্য বাবু ইনটেনসিভ কেয়ারের মধ্যে আছে। আর তিনি সর্বদা লড়াই করে চলেছেন। সত্যিই তিনি লড়াকু মনের একজন, যার ফলে তিনি যখন সুথ হয়ে উঠবে তিনি সহজেই সতেজ হয়ে উঠবে।