কো’ভি’ড চিকিৎসায় আইভারমেকটিন-ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহার করতে না, নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রের

এবার করোনা চিকিৎসায় বাতিল হয়ে গেল দুটি বিশেষ ওষুধ। জিংক মাল্টিভিটামিন এর মত ঔষধ আর খাবার কোন প্রয়োজন নেই। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অধিদপ্তর দিরেক্টর অফ হেলথ সার্ভিস এর তরফ থেকে একটি গাইডলাইন প্রকাশ করা হয়েছে যেখানে বলা হয়েছে, মৃদু উপসর্গ অথবা উপসর্গহীন রোগীদের জন্য কোন ঔষধ খাবার প্রয়োজন নেই। পাশাপাশি মুঠো মুঠো মাল্টিভিটামিন অথবা জিংক ট্যাবলেট খাবার কোন প্রয়োজন নেই। মুঠো মুঠো ভিটামিন ওষুধ খেয়ে উপকারের থেকে অপকার বেশি হয়েছে বলেই মতামত চিকিৎসকদের।

অনেক আগেই হাইড্রক্সি ক্লোরোকুইন বাদ পড়েছিল তালিকা থেকে। এবার তালিকার বাইরে চলে গেল আইভারমেকটিন, ডক্সিসাইকেলাইন। সামান্য অসুস্থতা হলে প্রয়োজন নেই সিটি স্ক্যান করার। দেখা গিয়েছে এই ধরনের পরীক্ষা বাড়তি বিপদ ডেকে আনছে। মাক্স স্যানিটাইজার ব্যবহার এবং শারীরিক দূরত্বও বিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। এছাড়া দৈনন্দিন জীবনে স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর খাওয়া দাওয়ার ওপর জোর দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

নোবেল করোনাভাইরাস এর চরিত্র দিনের পর দিন পাল্টে যাচ্ছে। মিউটেশনের ফলে তার নিত্য নতুন স্ট্রেন যেন আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে। তাই বারবার নতুন গাইডলাইন প্রকাশ করতে হচ্ছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক কে। সেই গাইডলাইন মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সাধারণ মানুষকে। নতুন গাইডলাইনে ঔষধ এর উপর নির্ভরশীলতা কমানোর জন্য সুপারিশ করল স্বাস্থ্যমন্ত্রক। যদিও এই মুহূর্তে দেশে মহামারী চিকিৎসার জন্য রেমডেসিভির, টু DG সহ একাধিক ঔষধ এর ছাড়পত্র দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তবে এবার তালিকা থেকে আস্তে আস্তে বাদ পড়ে যাচ্ছে অনেক ঔষধ।