দলের অন্দরে ক্ষোভ, মন খারাপ, সঙ্ঘের তিন মন্ত্র উচ্চারণ করে কর্মীদের বার্তা দিলেন দিলীপ ঘোষ

একুশের বিধানসভা নির্বাচনী দামামা বেজে গিয়েছে। নির্বাচনের পূর্বে প্রার্থী তালিকা পেশ করেছে বিজেপি। তবে বিজেপির তরফ থেকে প্রার্থী তালিকা পেশ হতেই রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভের বন্যা বয়ে গিয়েছে। গেরুয়া শিবিরের অভ্যন্তরেই প্রার্থী তালিকা নিয়ে নানান তরজা চলছে। একুশের নির্বাচনে লড়াইয়ের টিকিট পাওয়া না পাওয়া নিয়ে রাজ্যজুড়ে বিজেপি কর্মীদের মধ্যে চূড়ান্ত অসন্তোষ দানা বেঁধেছে।

এই অসন্তোষের প্রতিফলন ঘটছে পথে-ঘাটে এবং বিজেপি পার্টি অফিসে। রাজ্য জুড়ে যেন এক চরম বিশৃংখল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। দলের অভ্যন্তরে এহেন বিশৃংখলতা ভালোভাবে নেননি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাই তিনি সোশ্যাল মিডিয়া মারফত দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে দিলেন এক বিশেষ বার্তা। যে বার্তায় বিশ্বাসী তিনি এবং তার সংগঠন আরএসএস।

এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় দিলীপ ঘোষ লিখলেন, “নেশন ফার্স্ট, পার্টি সেকেন্ড, সেল্‌ফ লাস্ট”। অর্থাৎ রাষ্ট্রকে সর্বদাই প্রথমে গুরুত্ব দিতেই হবে। তারপরে আসবে দলের চিন্তা এবং নিজের স্বার্থ চিন্তার অবস্থান সব শেষে। এই নীতিতে বিশ্বাসী দিলীপ ঘোষ নিজেও। তাই তিনি এভাবেই কার্যত দলীয় কর্মীদের সংগঠনের তিনটি মূলমন্ত্র স্মরণ করিয়ে দিলেন।

দিলীপ ঘোষ এদিন বলেছেন, সকলেই প্রার্থী হতে চাইছেন! সকলের এই অদ্ভুত ইচ্ছা পর্যবেক্ষণ করেই তিনি সংগঠনের মূল মন্ত্রটি স্মরণ করিয়ে দিলেন। প্রসঙ্গত, দিলীপ ঘোষ নিজেও এই দফায় বিজেপি দলের হয়ে কোনো বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াননি। তাকে কার্যত দলের হয়ে তাদের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচারের কাজে লাগানো হয়েছে।