দশম শ্রেণীর ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, গ্রেপ্তার ৩, অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ হিন্দু জাগরণ মঞ্চের মাথাভাঙ্গায়

পূজা মণ্ডপ থেকে ফেরার পথে এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠে তিন যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহার জেলার মাথাভাঙ্গা মহকুমার ২ ব্লকের লতাপাতা গ্রাম পঞ্চায়েতের বৌলপাড়ি গ্রামে। ঘটনায় যুবতীর পরিবার স্থানীয় থানায় অভীযোগ দায়ের করে। পরে পুলিশ ওই অভিযোগের ভিত্তিতে ৩ জনকে আটক করে। স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, ওই নির্যাতিতা যুবতী দশম শ্রেণির ছাত্রী। শারদোৎসবের দশমী তিথীতে রাতে এই মেয়েটি তার বান্ধবিদের সাথে পূজা ঘুরে বাড়ি ফিরছিল। এই সময়েই কয়েকজন যুবক তাকে জোরযবরদস্তি করে তাদের বাইকে তুলে নিয়ে যায়।

এরপর তারা শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। ঘটনায় মেয়েটি চিৎকার করা শুরু করে। তার চিৎকারে স্থানীয় বাসিন্দারা ঘটনাস্থলে এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এই ঘটনায় পর যুবতীর পরিবার স্থানীয় থানায় শ্লীলতাহানি করার চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করে। ওই অভিযোগ পেয়েই ঘোকসাডাঙ্গা থানার পুলিশ ৩ অপরাধীকে গ্রেপ্তার করে। এছাড়া এই ঘটনার প্রতিবাদে মাথাভাঙ্গা দুই নম্বর ব্লকের ঘোকসাডাঙ্গা বাজারে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের তরফে বৌলপাড়ী নাবালিকা নিন্দনীয় ঘটনায় অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ এবং রুই ডাঙ্গা উনিশ-বিশা দুটি মেয়ে নিখোঁজ হিন্দু বোনেদের অবিলম্বে ঘরে ফেরার দাবিতে আজ ঘোকসাডাঙ্গা বাজারে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের তরফ থেকে এক বিশাল মিছিলের আয়োজন করে।

ঘোকসাডাঙ্গা থানার পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ওই ঘটনায় পুলিশ তিন অভিযুক্ত যুবকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে তাদের পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে এবং ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।