বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপে বাংলায় দুর্যোগের আশঙ্কা, সতর্কবার্তা দিল নবান্ন

আলিপুর আবহা দপ্তর সূত্রে আগেই জানানো হয়েছে, বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হচ্ছে নিম্নচাপ। এই নিম্নচাপ ক্রমশ নিজের শক্তি বাড়িয়ে চলেছে এবং ক্রমশই গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের দিকে সরে আসছে। ফলে ৭২ ঘণ্টায় সারা বঙ্গে প্রবল ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে। হাওয়া অফিস সূত্রে জানানো হয়েছে, রবিবার থেকে আগামী মঙ্গলবার দিন সারা রাজ্য জুড়ে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর রবিবার পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান, বাওড়া, কলকাতা এবং হুগলিতে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনার কথা জানিয়ে হলুদ সতর্কবার্তা জারি করেছে। পাশাপাশি, আগামী ৪৮ ঘন্টা অর্থাৎ সোম এবং মঙ্গলবার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আরও বাড়বে বলে জানানো হয়েছে। ফলে সোমবার এবং মঙ্গল বারের জন্য দক্ষিণবঙ্গে কমলা সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে।

মৌসম বিভাগ সূত্রে খবর, সোমবার বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে প্রবল বৃষ্টি হবে। পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলিতেও প্রবল বর্ষণে সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে।বীরভূম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমানে মঙ্গলবার প্রবল বৃষ্টি হতে পারে। ওই দিন বিকেল থেকেই বাংলার উপকূলবর্তী জেলা যেমন উভয় ২৪ পরগনা এবং উভয় মেদিনীপুরে ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে।

এর ফলে মৎস্যজীবীদের রবিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যারা ইতিমধ্যেই সমুদ্র পৌঁছে গেছেন তাদের অবিলম্বে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই আসন্ন দুর্যোগের খবর পৌঁছে গেছে নবান্নের কাছে। ফলে নবান্নের তরফ থেকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে জেলা প্রশাসনকে সর্বদা তৎপর থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি রাজ্যের সমস্ত নদী বাঁধের উপরেও নজর রাখতে বলা হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও ভারী বৃষ্টি সতর্কবার্তা জারি করেছে হাওয়া অফিস।