দুর্গা রূ’পে পিৎজা খেলেন দেবলীনা! ব্যা’প’ক ট্রো’লে’র শিকার অভিনেত্রী, জড়ালেন বচসায়

পঞ্চমীর বিকেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় সামান্য তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন উত্তম কুমারের নাতবৌ দেবলিনা কুমার। আজ মহাপঞ্চমী। নামেই মা দুর্গা মর্ত্যে আসেন পাঁচদিনের জন্য। কিন্তু বাঙালির পূজাতো দ্বিতীয়া-তৃতীয়া থেকেই শুরু হয়ে যায়। করোনাও এই উৎসবের দিনে বাঙালিরদের দমিয়ে রাখতে পারেনি। কোনরকম মানামানির বালাই নেই। হাতে না আছে মাস্ক, না মানা হচ্ছে সোশ্যাল ডিস্টেনসিং। তাই প্রশাসন থেকে শুরু করে অনেক তারকারাও সাধারণ মানুষকে সতর্ক করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় নানারকম পোস্টের মাধ্যমে। ঠিক তেমনই গৌরব-পত্নী দেবলিনা কুমারও নেট মাধ্যমে ভিডিও আপলোড করে নেটিজেনদের সতর্ক করেছেন।

ম্প্রতি দেবলীনা যে রিল ভিডিও নেট মাধ্যমে শেয়ার করেছেন সেই ভিডিও দেখে সেটাকে ‘ন্যাকামো’ বলেই মনে করছেন নেটিজেনরা। কারণ রিল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দেবলিনা ঘরের সাধারণ পোশাক পরে আছেন। কপালে এঁকেছেন ত্রিনয়ন। আর তারপর পিৎজার বাক্স খুলে পিৎজা খাচ্ছেন। ভিডিওটির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “এবারের পুজোতেও মনে হয় মা দুর্গা এটাই করবেন। কারণ, এখনও করোনা আছে। তিনিও সমস্ত মজা করবেন বাড়িতে বসে।

সকলে দয়া করে মজা করার পাশাপাশি নিজেদের খেয়াল রাখুন। সুরক্ষার দিকে নজর দিন। হ্যাপি পুজো। খুব ভালো করে কাটুক আপনাদের পুজো।” একইসঙ্গে পোস্টে তিনি এও উল্লেখ করেছেন যে তার এই রিল ভিডিওর উদ্দেশ্যেই হল সাধারণ মানুষকে সতর্ক করা। ক্যাপশনে তিনি আরও কারোর মনোভাবে আঘাত দেওয়া তার উদ্দেশ্য নয়।

তবে দেবলীনার এই ভিডিও দেখে কার্যত বেজায় চটেছেন এক ব্যক্তি। দেবলিনাকে উদ্দেশ্য করে তার বক্তব্য, ‘ন্যাকামি গুলো বন্ধ করুন এবারে। জঘন্য একেবারে।’ যদিও এসব কু-মন্তব্য দেখে তিনি তা কখনোই এড়িয়ে যাননা। পাল্টা উত্তর ছুঁড়ে দিয়েছেন দেবলীনা। ওই নেটিজেনের এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে দেবলীনা বলেন, ‘ন্যাকামি মনে হলে ফলো করছেন কেন?’ জনৈক নেটিজেন আবারও উত্তর দেন, “আপনার কিছু কিছু পোস্ট ভালো লাগে। তাই ফলো করি। কিন্তু এই পোস্টটা জঘন্য লাগল।” এই মন্তব্য দেখে দেবলীনা নিজেকে খানিকটা হলেও সংবরণ করলেন এবং কমেন্টে লিখলেন, “তাহলে দুঃখিত”।

এরপর তবে শেষমেষ ওই নেটিজেন সমস্ত কথা কাটাকাটির অবসান ঘটিয়ে গৌরব-পত্নীকে কমেন্টে বুঝিয়ে বলেন, “আপনাকে খুব ভালো লাগছে। কিন্তু আপনি যদি পিৎজা না খেয়ে পায়েস বা ক্ষীর খেতেন, তাহলে আরও ভালো লাগত।”