ওজন প্রায় ১৯৬ কেজি, হাসপাতালের বেডে শুয়ে করোনা পরীক্ষা গরিলার, ভাইরাল ছবি

এখন সারা বিশ্ব জুড়ে করোনার আবহ, আর তার মধ্যেই রোগীদের এখন হাসপাতালের বেডে শুইয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে, লালারস সংগ্রহ করা হচ্ছে।‌ এটা এখন এই পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক একটা ছবি। তবে সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে কয়েকটা ছবি, যেটা স্যোশাল মিডিয়ায় অনেকটাই ভাইরাল হয়েছে। এক ১৯৬ কেজির গোরিলাকে বিছানায় শুইয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে করোনা, আজ্ঞে হ্যাঁ, হাসপাতালের বেডে শুইয়ে।

এটা শুনে অনেকের বিশ্বাস হবে না, কিন্তু এটা কোনো হলিউড বই না, এটা সত্যি এক ঘটনা, ঘটনাটি ঘটেছে মায়ামিতে। সেখানে এক বিশালাকার গরিলার টেস্ট করা হয়েছে করোনা, আর সেটা করতে গিয়েই একেবারে কালঘাম ছুটেছে চিকিৎসকদের । একটা ছোট্ট ভুল বিশাল একটা বড় কিছু করে ফেলতে পারে গরিলা, এই কাজ করার জন্য দরকার সাহসের। যেটা চিকিৎসকদের ছিল বলেই তারা সহজেই কাজ করতে পেরেছে, সেই গরিলার করা হয়েছে সব ধরনের টেস্ট টিবি টেস্ট, আলট্রা সাউন্ড, এক্স রে। তবে খুশির খবর এটাই যে, তার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

GORILLA TREATED FOR BITE WOUNDS AND RECEIVES COVID-19 TESTSWARNING – some of the images may be considered too graphic…

Posted by Zoo Miami on Friday, July 10, 2020

তবে এখন সবার মনে একটা প্রশ্ন জাগতেই পারে যে, সেটা হল হঠাৎ কেনো এই গোরিলার করানো হল করোনা টেস্ট। আসলে মায়ামির এই চিড়িয়াখানায় শানগো ও বার্নি দুই ভাই, তারা একে অপরের সাথে হাতাহাতি করে , আর তারফলেই ৩১ বছরের শানগো আহত হয়, একেবারে রক্তারক্তি কান্ড ঘটে যায়। তার পরেই তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয় হাসপাতালে, তাই চিকিৎসকেরা চিন্তা করে যখন তাকে চিকিৎসার জন্য নিয়েই আসা হয়েছে, তখন এই সুযোগে করিয়ে নেওয়া যাক করোনা টেস্টও।