ক’রো’না পজিটিভ হয়ে লি’ঙ্গ দেড় ইঞ্চি ছো’ট হ’য়ে গিয়েছে যুবকের, নতুন আ’ত’ঙ্ক মানুষের ম’ধ্যে

দু’বছর ধরে গোটা বিশ্বে চলছে করোনার দাপট যার প্রভাবে সাধারন মানুষের জীবন এখন অচল অবস্থা প্রায়। লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে দিনে-রাতে সাথে মৃ’ত্যু ঘটছে অনেক। এইরকম অবস্থায় করোনার প্রথম এবং দ্বিতীয় চলে যাওয়ার পর নতুন করে আবার প্রভাব পড়ছে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের‌। ইতিমধ্যে বহু মানুষ করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণে সংক্রমিত হয়েছে এবং অনেকেই সুস্থ হয়ে যাচ্ছেন কিন্তু অনেক অসুস্থ হয়ে গেলেও দেখা যাচ্ছে শরীরে কিছু বদল।

বিশেষজ্ঞরা প্রথম থেকেই বলেছেন করোনার মত মহামারীতে আক্রান্ত হওয়ার পর শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ সমেত অনেক জায়গাতেই ক্ষতি হতে পারে কিন্তু বর্তমানে যে সমস্যাটি উঠে এসেছে তা সত্যিই বিশেষজ্ঞদের কপালে হাত দেওয়ার মত অবস্থা। মার্কিন এক যুবক কিছুদিন আগে করোণায় আক্রান্ত হয়েছে এবং তার শরীরের দেখা গেছে বিশেষ কিছু উপসর্গ এবং সেটি হল পু’রু’ষা’ঙ্গে’র দৈ’র্ঘ্য কমে যাওয়া, এইরকম একটি নতুন উপসর্গ রীতিমতো চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি সৃ’ষ্টি করে দিয়েছে।

খবর সূত্রে জানা গেছে যে ওই মার্কিন যুবকের বয়স ৩০ বছর এবং বেশ কিছুদিন ধরে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কিন্তু শেষে যখন তিনি করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠলেন তার পরই দেখা গেল তার শরীরে কিছু বদল। তিনি হাসপাতাল থেকে যখন ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসেন তার পরে দেখতে পান একটি অদ্ভুত ঘটনা।

তিনি বলেন যে, তার লি’ঙ্গ’র দৈঘ্য কমে গেছে। এরপরই তিনি এই সমস্যার জন্য চিকিৎসকের কাছে ছুটে যান এবং তিনি দাবি করেন যে তার লিঙ্গ আগের থেকে প্রায় দেড় ইঞ্চি কমে গেছে। এ পর্যন্তই না ওই যুবক জানালো তার পু’রু’ষা’ঙ্গে’র সংবহনতন্ত্রের স্থায়ী ক্ষতিও ঘটেছে। চিকিৎসকদের মতে এই ধরনের ক্ষতির আগামী দিনেও চিরস্থায়ী হতে পারে বলে মনে করছেন।

তবে বিশেষজ্ঞদের কাছে এই ঘটনাটি সত্যি চমকে দেওয়ার মতো। গবেষকরা জানিয়েছেন এই ধরনের সমস্যা আগামী যৌ’ন জীবনে যথেষ্ট প্রভাব ফেলবে এমন কি যারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে এরকম অবস্থার সম্মুখীন হয়েছে তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর যথেষ্ট প্রভাব পড়বে। এই ধরণের ঘটনার সাথে ও অনিচ্ছাকৃতভাবে যে পুরুষাঙ্গ একটানা দৃঢ় থাকতে পারে সেই ধরণের ঘটনাও ঘটেছে এ ধরনের উপসর্গগুলোকে প্রায়াপ্রিজম বলা হয়। লন্ডনের

একটি ইউনিভার্সিটি কলেজ এই বিষয়ে গবেষণা করা হয় এবং সেখানে ৩৪০০ জনের ওপর এই গবেষণা করা হয় এরপরে দেখা যায় যে এই সমস্ত গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রায় ২০০ জনের এই ধরনের লি’ঙ্গ জ’নি’ত সমস্যা দেখা দিয়েছে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ফলে। গবেষকরা এই সমস্যার ব্যাপারে জানান যে যারা করোনার ফলে এ ধরণের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের বিশেষ করে ক্ষতি হয়েছে এন্ডোথেলিয়াল কোষে।