বঙ্গোপসাগরে ক্রমশ ঘনীভূত নিম্নচাপ, দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

ওড়িশা উপকূলে ফের তৈরী হয়েছে নিম্নচাপ। আর সেই কারণেই এবার দক্ষিণবঙ্গের গাঙ্গেয় উপকূলে একটা ভারী প্রভাব পরতে চলেছে। এই প্রভাব থাকবে আগামী সোমবার পর্যন্ত। উপকূলের বিভিন্ন রাজ্যের ওপরে নিম্নচাপের প্রভাব পরতে চলেছে। বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা সব জায়গায়। তাই তিমধ্যে যারা মতসজীবী আছেন, তাদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে, যাতে তারা আগামী ২-৩ দিন সমুদ্রের কাছে না যায়। যারা গেছেন সমুদ্রে তারা যেনো ফিরে আসে।

এদিকে দক্ষিণবঙ্গের সাথে উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টির প্রভাব আছে, কিন্তু সেটা সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ে। আগামী বুধবার এই সময় দেওয়া হয়েছে উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ও পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ দেখা দিয়েছে। এই ওড়িশার নিম্নচাপের ফলে গাঙ্গেয় পশ্চিম বঙ্গের জেলাগুলোতে মেঘলা আকাশ সহ হালকা মাঝারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে।

এখন দক্ষিণের জেলাগুলোতে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি অনেকটাই বেশী কারণ এখন রাজ্যে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ অনেকটাই, আপাতত উত্তরবঙ্গে নেই ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস, আর সেই কারণেই বিভিন্ন জেলায় হালকা মাঝারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। এদিকে মৌসুমী অক্ষরেখার অবস্থান হিমালয়ের পাদদেশ জুড়ে, আর সেই কারণে কিছুটা প্রভাব উত্তরপূর্ব ভারতের ওপরেও পরতে চলেছে।

আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিশেষ করে উপকূলের জেলাগুলোতে বেশী প্রভাব পরতে চলেছে, দুই ২৪ পরগনা, দুই বর্ধমান, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, মুর্ধিদাবাদ সব জায়গায়। আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশ মেঘলা, আর তার ফলেই সকাল থেকেই আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি। আজ কলকাতার সর্বিনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রীর ঘরে। এদিকে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৯৫% এর ঘরে।