সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে সক্রিয় মাদকচক্র, কমেডিয়ান ভারতী সিংকে গ্রেফতার করলো এনসিবি

সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর পর থেকে যেন খোলা পাতার মতো হয়ে গেছে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি।একের পর এক অন্ধকার দিক যেন আমাদের সকলের কাছে ধরা দিচ্ছে।একচেটিয়া রাজত্ব থেকে শুরু করে কিভাবে একে অপরের বিরুদ্ধে ফন্দি এঁটে তাকে কাজ থেকে দূর করে দেওয়া যায়, তা বেশ ভালোমতোই জানেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির কলাকুশলীরা।ইতিমধ্যেই মাদক পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে থাকার কারণে এন্সিবির করেছিল দীপিকা পাডুকোন থেকে সারা আলি খান সকলকে। সেই খবর ধামাচাপা পড়তে না পড়তেই আবার কমেডিয়ান হিসাবে পরিচিত ভারতী সিং-এর বাড়িতে হানা দিল এনসিবি।

সূত্রের খবর অনুযায়ী শুধুমাত্র তাদের মুম্বাইয়ের ফ্ল্যাটে নয় আন্ধেরি লোখান্ডওয়ালা এবং ভারসোভা এলাকায় তল্লাশি চালায় এনসিবি। ভারতী সিং কে আমরা জেনেছি দ্য কপিল শর্মা শো থেকে। পাশাপাশি তিনি একটি নাচের রিয়্যালিটি শোতেও সঞ্চালকের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। ঝালাক দিক লাজা, নাচ বালিয়ে এবং অন্যান্য টিভি শোতে অনেকবার দেখা গেছে ভারতী কে।মহিলা কমেডিয়ান হিসেবে তিনি খুবই পরিচিত একটি মুখ।

কিছুদিন আগে মাদক চক্র জড়িত থাকার কারণে অর্জুন রামপাল কেউ ডেকে পাঠিয়েছিলেন এনসিবি। তাকে ৬ ঘণ্টা জেরা করা হয়েছিল। যদিও তিনি এ প্রসঙ্গে বলেছিলেন যে, তাকে শুধুমাত্র সহায়তা করার জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তিনি প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে মাদকচক্রের সঙ্গে জড়িত নয়। শুধুমাত্র অর্জুন রামপাল নয়,কিছুদিন আগে মাদক চক্র জড়িত থাকার কারণে গ্রেফতার হন অর্জুন রামপালের বন্ধু পল বর্তেল।এমনকি অর্জুন রামপালের প্রেমিকাকেও হাজিরা দিতে হয়েছিল এনসিবির দপ্তরে।তখন অর্জুন রামপালের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনসহ আরো যাবতীয় ইলেকট্রনিক্স জিনিস বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছিলেন এনসিবি।

অন্যদিকে মাদক মামলায় এনসিবির হাতে ধৃত বলিউডের প্রযোজক ফিরোজ নাদিওয়ালার স্ত্রী শাবানা শাহিদ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর সমন পাঠানো হয়েছিল প্রযোজক কেও। এএনআই টুইটারে জানিয়েছিলেন যে,মাদক মামলায় গতকাল গ্রেফতার হয়েছিলেন চিত্রনির্মাতা ফিরোজ নাদিওয়ালা স্ত্রী এবং আরও ৪ জন মাদক পাচারকারী। তাদের মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে।