ভাইরাস মুক্ত করতে কলকাতার রাস্তায় শুরু রাসায়নিক স্প্রে

করোনা থেকে বাচতে এবার পশ্চিমবঙ্গ সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে বানানো হয়েছে করোনা সেন্টার, সাথে স্টেডিয়ামকে বানানো হয়েছে করোনা সেন্টার। যাতে দিন মজুর কর্মীরা আগামী কয়েকটি দিন চলতে পারে তার জন্য ১০০০ টাকা করে দেওয়ার প্রস্তাব পর্যন্ত করা হয়েছে। এদিকে রেশনের চাল আগামী ৬ মাসের জন্য বিনামূল্যে করে দেওয়া হয়েছে।

এবার এইসবের সাথে কলকাতাকে সুস্থ রাখতে আরও একটি পদক্ষেপ নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবার কলকাতাকে জীবাণূমুক্ত করার জন্য চারিপাশে করা হচ্ছে রাসায়নিক স্প্রে। রাস্তাঘাট, পুরসভা, হোম কোয়ারিন্টিন থেকে মানুষদের জীবাণুমুক্ত করার জন্য, করা হচ্ছে সর্বদা রাসায়নিক স্প্রে। এর জন্য এবার ব্যবহার করা হচ্ছে আধুনিক মেশিন।

এদিকে মেয়রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আমরা এখন আরও আধুনিক ছোট বড় মেশিন কিনব। এখন আপাততঠিক করা হয়েছে মোট ২০ টির মতো মেশিন কেনা হবে, এখন যে কয়েকটা মেশিন দিয়ে স্প্রে করা হচ্ছে জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে, সেইহিসেবে সংখ্যাটাকে বাড়ানো হবে। কলকাতা শহরের বিভিন্ন জায়গায় গাড়ি নিয়ে ঘুরে ঘুরে এই স্প্রে করা হবে।

এর জন্য এখন ২০ টি গাড়ির বন্দোবস্ত করা হয়েছে। আসলে জে রাসায়নিক স্প্রে করা হচ্ছে সেটা হল জলের সাথে ক্লোরিন মিশিয়ে। ভবানীপুর, উল্টোডাঙ্গা, পার্ক স্ট্রিট এইসব জায়গায় হয়ে গেছে স্প্রে করা এখন বাকি জায়গায় গুলোতে জীবাণু দমন করার জন্য স্প্রে করা হবে। রাস্তা ঘাত, অফিস, আবাসন, সমস্ত জায়গায় চলবে এই জীবাণু দমন।