আর মাত্র কিছুক্ষণ, জেলায় জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা, জানাল হাওয়া অফিস

আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন, কিন্তু আজ যেনো অন্য রুপ দেখা যাচ্ছে প্রকৃতির।গতকাল রাতের দিকে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ঝড় বৃষ্টি হয়েছে, আর তার ফলেই আজ কলকাতারা তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে নিচে, আজ্ঞে হ্যা, আজ কলকাতার সর্বনিন্ম তাপমাত্রা ২৩.৯ ডিগ্রী ও আওর্বোচ্চ ৩৬ ডিগ্রী। এমনভাবে তাপমাত্রার তারতম্য ঘটে চলেছে গত কয়েকদিন থেকেই। সামনেও যে এমন ঝড় বৃষ্টির ফলে তাপমাত্রার তারতম্য ঘটবে সেটাও জানিয়েছেন আবহাওয়া দপ্তর।

আবহাওয়া দপ্তর আগের থেকেই জানিয়েছিল, আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ঝড় বৃষ্টির দাপট শুরু হওয়ার সম্ভাবনা আছে, আর সেটা যে আজ থেকেই শুরু হবে সেটা বোঝাই যাচ্ছে। দক্ষিণ বঙ্গ সহ উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় এই ঝড় বৃষ্টির প্রভাব ভালোই পরবে। দক্ষিন বঙ্গের উপকূলের জেলাগুলোতে সব থেকে বেশী প্রভাব পরবে দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগণা, দুই বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, হাওড়া সব জায়গায় ভালোই প্রভাব পরতে চলেছে।

আজ কলকাতার সর্বনিন্ম তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৩ডিগ্রী কম। এদিকে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। সর্বোচ্চ এখন ৯৩%। তবে হ্যা এর কারণে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি তো বজায় থাকবেই, সাথে ভ্যাপসা গরম। এই চলতি সপ্তাহের মাঝামাঝি পর্যন্ত এই ঝড় বৃষ্টি চলার সম্ভাবনা আছে। সাথে চলবে বজ্রবিদ্যুত, ঝড়ো হাওয়া যা ৩০-৪০ কিমি স্পিডে বইবে বলেও জানা গেছে। দক্ষিন বঙ্গের সাথে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় এই প্রভাব পরতে চলেছে।

দার্জিলিং, কালিংপং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার , কোচবিহার সব জায়গায় এর প্রভাব পরতে চলেছে। এদিকে জোড়া ঘূর্ণাবাত বিরাজ করছে বাংলাদেশ থেকে বিহার পর্যন্ত। আর সেই কারণেই এখন রাজ্যে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প প্রবেশ করছে। আগামী কয়েকদিন সমুদ্র থাকবে অনেকটাই উত্তাল, তাই মৎস্যজীবীদের সমুদ্র থেকে অনেকটাই দূরে থাকতে বলা হয়েছে।