চাণক্য বাণী, কোন নারীকে করবেন বিয়ে ও কিভাবে বেছে নেবেন নিজের জীবনসঙ্গী, জানুন

প্রাচীন ভারতীয় দার্শনিক তথা অর্থনীতিবিদ চাণক্য কে আমরা সকলেই চিনি। অর্থশাস্ত্র গ্রন্থের রচয়িতা তিনি।চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের উপদেষ্টা চাণক্যের নীতি মেনে চলা হয় সেই সুদূর অতীতকাল থেকে। আজও চাণক্যের নীতি মেনে চলে জীবন অতিবাহিত করেন অনেক মানুষ। তার কিছু নীতি আজও মানুষের কাছে সমান গ্রহণযোগ্য।এবার দেখা যাক আড়াই হাজার বছর আগে বিবাহ প্রসঙ্গে চাণক্য নীতি অনুসারে কি কথা বলা হয়েছিল।

নারীর রূপ নিয়ে বিন্দুমাত্র চিন্তিত নন চাণক্য। তিনি মনে করেন যে অন্তরের সন্ধান করলেই সঠিক মানুষ বেছে নেওয়া সম্ভব। যার অন্তর আত্মা সুন্দর হবে, তিনি হবেন সুযোগ্য পাত্রী র অধিকারী।সুন্দরী অথচ কোন গুণ নেই, এমন নারী সংসর্গ এড়ানোর জন্য পরামর্শ দিয়েছিলেন চাণক্য।বিবাহ বিষয়ে কোনো রকম কটুভাষী নারীর থেকে দূরে থাকার জন্য পরামর্শ দেওয়া আছে চাণক্য নীতি তে।

অবশ্যই বিশ্বাসযোগ্যতা এবং সত্যবাদিতা সম্পর্কে প্রথমেই সুনিশ্চিত হতে পারেন চাণক্য। দায় বদ্ধতা এবং সম্মান দুই পক্ষের জন্যই প্রযোজ্য। চাণক্যের যুগের বিবেচনা পুরুষতান্ত্রিক ছিল বলেই মনে করা হয় তবে চাণক্যের চিন্তা ধারা আজও কতটা গ্রহণযোগ্য তা বলাই বাহুল্য।