কালীপুজোতে বাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ ঘোষণা কলকাতা হাইকোর্টের

এবার আর কোনো ছাড় থাকল না কালীপুজোর বাজি নিয়ে, আজ বিচারক সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন এবার কালীপূজোতে বাজি একেবারেই নিষিদ্ধ করা হল পশ্চিমবঙ্গে। রাজ্যের বর্তমান করোনা পরিস্হিতির কথা মাথায় রেখেই নেওয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত, কোনোভাবেই এই বাজি ফাটানো তো দূরের কথা ,বেচা কেনা পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হল। যেখানে রাজ্য সরকার নিজের থেকেই রাজ্য বাসীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন বাজি না ফাটানোর, সেখানে নিশ্চয়ই করোনা রোগীদের পরিস্হিতি বিচার করেই নেওয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত।

তাই কোনো ভাবেই সেই সব রোগীদের ভুলে গিয়ে আমাদের উৎসবে মেতে উঠলে চলবে না। তাই শুধু ১৪, ১৫, ১৬ অক্টোবর নয় পুরো অক্টোবর মাস ধরেই বাজি বিক্রি, কেনা ও ফাটানোর ওপরে নিষেধাজ্ঞা জানালো হাইকোর্ট। গত কয়েকদিন আগেই এই বাজি ফাটানো নিয়ে ও কালীপুজোর মন্ডপের প্রবেশ নিয়ে মামারা দায়ের করা হয় কলকাতা হাইকোর্টে, সেই মামলার আজ বৃহস্পতিবার রায় দিল বিচারক সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়। এখানেই শেষ না, আমাদের এবার দূর্গাপূজার মধ্যেও যেসব ধরনের নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল ঠিক সেই ভাবেই কালীপুজোর ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করল কলকাতা হাইকোর্ট।

দমদম, নৈহাটি, বারাসাত এই সব জায়গায় সব থেকে বেশী জাঁকজমক ভাবে কালীপূজা হয়, আর সেখানেই সব থেকে মানুষের ভিড় উপচে পরে। কিন্তু করোনা কালে যাতে তেমন না হয়, সেই কারণেই প্রত্যেক মন্ডপে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সাথে সামাজিক দূরত্ব, ও জমায়েত না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শেষে বলা হয়েছে শোভাযাত্রা সম্পর্কে, দূর্গাপূজাতেও যেমন ভাবে নো এন্ট্রি বোর্ড ঝোলানো হয়েছিল মন্ডপে মন্ডপে তেমন ভাবে কালীপুজোর মন্ডপেও ঝুলবে নো এন্ট্রি বোর্ড।