কো’ভি’ড প’জি’টি’ভ মা-কে নিয়ে পিঠে অ’ক্সি’জে’নের ট্যাং’ক নিয়ে বাইকে চড়িয়ে হাসপাতালে ছুটলেন ছেলে

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন মা। শ্বাসকষ্টের উপসর্গ দেখা দিয়েছে! এমতাবস্থায় দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন। অথচ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স মিলছে না। নিদেনপক্ষে একটা গাড়ির ব্যবস্থাও করা যাচ্ছে না। গ্রামেগঞ্জে এমন ঘটনা প্রায়শই ঘটে। যে কারণে সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছাতে না পেরে করুণ মৃত্যু মুখে পতিত হন অনেকেই। তবে এবার এক নতুন ঘটনার সাক্ষী থাকলো পশ্চিমবঙ্গের প্রতিবেশী রাজ্য বাংলাদেশ।

করোনার হাত থেকে মাকে বাঁচাতে ছেলে তার নিজের পিঠের সঙ্গে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে নিয়ে মোটরবাইকে করেই মাকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেন! ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের ঝালকাঠি জেলার নলসিটি শহরে। বাংলাদেশের এই ঘটনা লকডাউনের আসল চিত্রটি তুলে ধরলো। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতেই লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে বাংলাদেশে।

যে কারণে রাস্তাঘাটে যান চলাচল প্রায় বন্ধ। এদিকে বাড়িতে অসুস্থ মা। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে শ্বাসকষ্টের মাত্রা বাড়ছে। এমতাবস্থায় ছেলে মোটরবাইকের মাধ্যমেই মাকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন। শুধুমাত্র ছেলের উপস্থিত বুদ্ধি এবং ঝুঁকি নেওয়ার ক্ষমতার দরুন সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছতে পারলেন ৫৭ বছর বয়সী প্রৌঢ়া রেহানা পারভীন।

তার ছেলে জানাচ্ছেন, মায়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে সেই সময় তার যা মনে হয়েছিল তিনি তাই করেছেন। মোটরবাইকের মাধ্যমেই মাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার মনস্থ করেন তিনি। এবার রাস্তায় যাওয়ার সময় অক্সিজেনের অভাবে মা যাতে আরও অসুস্থ না হয়ে পড়েন, সেইজন্য অক্সিজেনের ভারী সিলিন্ডারটি নিজের পিঠে সঙ্গেই বেঁধে নিয়েছিলেন তিনি। এতে অবশ্য দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা ছিল। তবে পরিস্থিতি তাকে সেসব ভাবতে দেয়নি।