সুশান্ত মামলায় বড়ো আপডেট, অভিনেতার “আত্মহত্যা” তত্ত্ব উড়িয়ে দিলো সিবিআই

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, সিবিআই নাকি তদন্ত করেও সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলায় খুনের কোনো প্রমাণ পায়নি। প্রতিবেদনের স্বপক্ষে তারা তিনজন সিবিআই আধিকারিকের বক্তব্য উল্লেখ করেছিলেন। এই প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি সিবিআই তরফ থেকে জানানো হলো, এ সংক্রান্ত কোনো বিবৃতি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করেনি সিবিআই। উল্লেখ্য, সিবিআইয়ের তরফ থেকে এই প্রথমবার বিবৃতি প্রকাশ করে জানানো হলো, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্যের তদন্ত করতে গিয়ে যা যা তথ্য পেয়েছেন আধিকারিকরা, সংবাদমাধ্যমের কাছে তার কোনোটাই প্রকাশ করা হয়নি। সিবিআইয়ের স্পষ্ট দাবি, শুধুমাত্র অনুমানের উপর ভিত্তি করেই ভুল তথ্য পরিবেশন করছে সংবাদ মাধ্যমগুলি। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের সাথে সিবিআইয়ের তদন্তের কোনো মিল নেই।

সম্প্রতি সিবিআইয়ের তরফ থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্যের তদন্ত সম্পূর্ণভাবে পেশাদারিত্বের সাথে সম্পন্ন করছেন সিবিআই আধিকারিকরা। তদন্ত চলাকালীন সংবাদমাধ্যমের কাছে কোনো তথ্য প্রকাশ করা যায় না। তাই সিবিআই তরফ থেকে সংবাদমাধ্যমে কিছুই জানানো হয়নি। তবে, বর্তমানে সিবিআইয়ের নাম জড়িয়ে যা যা তথ্য পরিবেশন করছে সংবাদ মাধ্যম গুলি, তার সবটাই মনগড়া, এমনটাই দাবি করছে সিবিআই।

এইভাবে অনুমানের উপর ভিত্তি করে সিবিআইয়ের নাম জড়িয়ে জনসমক্ষে ভুল তথ্য তুলে ধরাতে সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে বেজায় ক্ষুব্ধ সিবিআই আধিকারিকেরা। সিবিআইয়ের তরফ থেকে স্পষ্টভাবে জানানো হয়েছে, সিবিআইয়ের নাম জড়িয়ে জনসমক্ষে কোনো তথ্য প্রকাশ করার আগে, অবশ্যই সিবিআইয়ের মুখপাত্রের সাথে সেই তথ্য সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন। উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের তদন্তের পাশাপাশি, তার ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর তদন্ত করছে সিবিআই। এদের দুজনের আচমকা মৃত্যুর মধ্যে কোনো যোগাযোগ রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখতে চান আধিকারিকেরা।