আজ শপথ নেবেন বাইডেন, তবুও প্রচারে সেই ট্রাম্পই

আজ, ২০শে জানুয়ারি। আমেরিকার নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠান আজই সম্পন্ন হবে। মার্কিন মুলুকের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের থেকে দায়িত্বভার বুঝে নেবেন জো বাইডেন। স্বভাবতই মার্কিন মুলুকের জন্য আজকের দিনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে জল্পনার অবসান যেন কিছুতেই ঘটতে চাইছে না। বিদায়ী প্রেসিডেন্ট সহজে হার মানতে রাজি নন। বিশেষত জো বাইডেনের কাছে পরাজয় স্বীকার করে নিতে তিনি এখনো তৈরি নন।

সাম্প্রতিককালের ঘটনাবলীর জেরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জোর সমালোচিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। রাজনৈতিক মহল, কূটনৈতিক মহল, এমনকি সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মেও জোর অপমানিত হয়েছেন ট্রাম্প। তার টুইটার একাউন্ট চিরতরের জন্য ব্লক করে দেওয়া হয়েছে। তার উপর আবার বিভিন্ন মামলায় ফেঁসে রয়েছেন তিনি। বিশেষত মার্কিন মুলুকের ক্যাপিটালে হামলা চালানোর পেছনে তার উস্কানি মূলক ভাষণের জেরে রীতিমতো ট্রাম্পের জেলে যাওয়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

এরই মাঝে আবার মার্কিন মুলুকের রাজনৈতিক মহলে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ইমপিচ করার রব উঠেছে। তেমনটা যদি হয় তাহলে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে পারবেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে জো বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠান তথা প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠানের বাতাবরণ তৈরি হলেও মার্কিনিরা এখনো কার্যত বিদায়ী প্রেসিডেন্টকে নিয়েই সমালোচনায় ব্যস্ত।

মার্কিন রাজনৈতিক মহলের অন্দরমহল সূত্রে খবর, বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং বিদায়ী মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প জো বাইডেনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন না। মেলানিয়া অবশ্য বিদায় গ্রহণের পূর্বে সাত মিনিটের একটি ভিডিও বার্তা জনসমক্ষে তুলে ধরেছেন। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পূর্ণ নিশ্চুপ। স্বভাবতই ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীরবতা নিয়ে মার্কিন মুলুকে জোর গুঞ্জন শুরু হয়েছে। তিনি কি ভাবছেন, কি করতে চলেছেন, তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি? সেই নিয়ে মার্কিন প্রদেশে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে।