কটাক্ষের শিকার ভীম, ছুটকির বদলে বিয়ে ইন্দুমতীকে, সবটাই গুজব, জানুন আসল কাহিনী

ঢোলক পুরে এখন অচলায়তন অবস্থা। সেই ছোট্টবেলা থেকে জুটি ভীম আর চুটকি। কিন্তু শেষমেষ সেই জুটির কিনা বিচ্ছেদ হয়ে গেল। শেষমেষ রাজকুমারী ইন্দুমতীর গলায় কিনা মাল্যদান করল ভীম? এ তো ভারি অন্যায়। এই অন্যায় মন থেকে মেনে নিতে পারছেন না দর্শকরা। অথবা ছুটকির প্রতি বিচারের দাবি চাইছেন তারা সোশ্যাল মিডিয়ায়।টুইটারের ট্রেন্ডিং “জাস্টিস ফর চুটকি “। ছোটা ভীমের প্রতি রেগে কাঁই দর্শকরা। কি করে এটা করতে পারল সে এই কথা তুলে প্রশ্ন জানিয়েছেন সবাই। ছোটা ভীম কে অনেকে ধোকাবাজ আখ্যা দিতেও ছাড়েননি। ছোটবেলা থেকে অন্তরঙ্গ বন্ধুত্ব এদের দুজনের।

যখনই ভীম বিপদে পড়েছে ছুটকি তাকে উদ্ধার করতে ছুটে গেছে। রণে বনে জলে জঙ্গলে সব সময় তার পাশে থেকেছে। টুনটুন মাসির থেকে লুকিয়ে লুকিয়ে লাড্ডু এনে খাওয়াত ছোটা ভীম কে। আর সেই ছুটকি কে কি না ছেড়ে দিয়ে রাজকুমারী ইন্দুমতী সাথে সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছে ভীম। এটি যেন মানতেই পারছিনা আমজনতা। গোটা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে এখন ক্ষোভ উগরে দিচ্ছে। নেটিজেনরা বলছেন যে মেয়েটি তোমার জন্য এত কিছু করল তাকেই তুমি কি না ছেড়ে দিলে ভীম। এটা তুমি ভালো করলে না। কেউ কেউ আবার ছুটকি র প্রতি সহমর্মিতা দেখিয়ে বলছেন আহারে কি কষ্টই না হচ্ছে মেয়েটার।ছুটকির প্রতি এই অবিচার তারা সইতে পারছেন না।

ইন্দুমতী র সঙ্গে ছোটা ভীমের ঘরবাধার সিদ্ধান্তে মন ভেঙেছে বহু নেটিজেনদের।উল্লেখ্য গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে টেলিভিশনে কার্টুন সিরিজ হিসাবে ছোটা ভীম সুপার হিট। ছোটা ভীম যেমন সুপারহিরো তেমনি সিরিজের হিরোইন ছুটকি। রাজকুমারী হয়েও যেন বরাবরই পার্শ্বচরিত্র থাকে ইন্দুমতী। এই ঘটনার সঙ্গে নয়ের দশকের কুচ কুচ হোতা হে ছবির তুলনা টেনেছেন অনেকেই। ছোটা ভীম নির্মাতারাও পড়েছেন বিপাকে।

ছোটা ভীম এর সঙ্গে ছুটকির বিয়ে না হওয়ার ব্যাপারটা নিয়ে এইভাবে বিক্ষোভ হবে তারা বুঝতে পারেন নি।নেট দুনিয়ায় ছুটকির প্রতি এমন বিচারের দাবি দেখে উদ্বিগ্ন তারা। পাছে দর্শকের সংখ্যা টিআরপি কমে যায় এই নিয়ে তারা চিন্তিত। অতঃপর চাপের মুখে পড়ে তারা জানিয়েছেন এরকম কিছুই ঘটছে না। ছোটা ভীমের এখনই বিবাহ হচ্ছে না। তাই শুনে আপাতত শান্ত হোন দর্শকরা। অদূর ভবিষ্যতে যেন ছুটকির সাথেই ছোটা ভীমের বিয়ে হয় এই নিয়ে কথা চেয়েছেন তারা।