“জয়ের পর একটু বিনয়ী হোন”, ভোটের পরেও রা’জ্যে হিং’সা নি’য়ে স’র’ব আবির-সৃজিত সহ অন্যান্যরা

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল বেরিয়েছে। পদ্ম শিবিরকে ভীষণভাবে হারিয়ে এগিয়ে গেছে তৃণমূল শিবির। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয়বার জয় সকলকে মুগ্ধ করেছে। তবে ভোটের ফলাফল প্রকাশে আসার পরেই জেলায় জেলায় তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা যেভাবে বিজয় উৎসব শুরু করে দিয়েছিলেন তা একেবারেই গ্রহণ যোগ্য ছিল না। করণা পরিস্থিতিতে এইভাবে মিটিং মিছিল করা একেবারেই উচিত নয়, আমরা সকলেই জানি। কিন্তু জয়ের হাসি হাসার জন্য রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছেন বহু মানুষ। কিন্তু শুধুমাত্র বিজয় মিছিল করেই থেমে থাকেনি, জয়ের পর রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়ে গেছে ভোট পরবর্তী হিংসা।

কোথাও বিজেপি অথবা সিপিএম কর্মীদের মারধর করা হয়েছে কোথাও খুন করা হয়েছে তাদের। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেন যে, ইতিমধ্যেই ৬ জন বিজেপি কর্মী খুন হয়েছেন গোটা রাজ্যে। সোমবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে। তার মধ্যেই এই বিষয়ে সরব হতে শোনা গেল টলিউডের তারকাদের। একে একে মুখ খুলেছেন ঐশী ঘোষ আবীর চট্টোপাধ্যায় এবং সৃজিত মুখোপাধ্যায়। সম্প্রতি আবীর চট্টোপাধ্যায় টুইট করে লিখেছেন যে, জয়ের পর একটু অন্তত বিনয়ী হন। এটা আমার অনুরোধ। আমাদের যুদ্ধ করতে হচ্ছে মারন ভাইরাসের সঙ্গে। তার মধ্যে এমন কাজ করবেন না আপনারা।

অন্যদিকে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে, সিপিএম পার্টি অফিসে গিয়ে ভাঙচুর করা হচ্ছে। যারা রেড ভলেন্টিয়ার্স হিসেবে আমাদের পাশে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন, তারা আজ আক্রান্ত। এই কথা শুনতে অথবা বলতে লজ্জা হচ্ছে। আমরা কি বিজয় উৎসব পালন করছি? তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এর বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে বামপন্থী নেত্রী ঐশী ঘোষ ভীষণভাবে নিন্দা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। বিধানসভা ভোটে জামুরিয়া কেন্দ্রের প্রার্থী ছিলেন তিনি। সম্প্রতি টুইটারে চারটি ছবি শেয়ার করে তিনি লেখেন যে, তৃণমূলের আগে মানুষকে সম্মান জানানো উচিত। যারা মানুষের সেবার জন্য আপনাদের পুনর্নির্বাচন করেছেন, তাদের মধ্যে হিংসা ছড়িয়ে দেবার জন্য এই কাজ করবেন না। আপনার পার্টি কর্মীরা বাড়ি ভেঙে দিচ্ছে, মানুষ খুন করছে, এগুলি কোনভাবেই বরদাশ্ত করবেন না দয়া করে।