খারাপ খবর তৃণমূলের পক্ষে, মন্ত্রিত্ব ছাড়লেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে একে একে তৃণমূল দল ছাড়ছেন দলীয় নেতা-কর্মী, বিধায়ক, সাংসদেরা। নতুন বছরেও সেই ধারা অব্যাহত রইলো। এবার তৃণমূল দলের মন্ত্রিত্ব পদ ছাড়ছেন হাওড়ায় তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি লক্ষ্মীরতন শুক্লা। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে এই মর্মে তিনি নিজের পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। তৃণমূল নেত্রী ইতিমধ্যেই তা গ্রহণও করেছেন বলেই জানা যাচ্ছে।

তবে পদত্যাগপত্র পাঠালেও দলের বিধায়ক পদ থেকে অবশ্য এখনই ইস্তফা দিচ্ছেন না লক্ষ্মীরতন শুক্লা। তার বিধায়ক পদের মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত তিনি সেই পদের দায়িত্বভার সামলাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে দলবদলের মরসুমে লক্ষ্মীরতন শুক্লা কিন্তু বিরোধী দলে যোগদান করার লক্ষ্যে দল ছাড়ছেন এমনটা নয়।

তিনি তার মন্ত্রিত্ব পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কারণ হিসেবে জানিয়েছেন, তিনি একজন ক্রিকেটার। ক্রিকেট দুনিয়ায় ফের একবার পা রাখার উদ্দেশ্যেই রাজনৈতিক দুনিয়ায় ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। তবে তার এহেন অবস্থানের জেরে রাজনৈতিক মহলে স্বভাবতই তাকে নিয়েও জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, ভবিষ্যতে অন্যদের মতোই বিজেপি দলে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার।

তবে সেই জল্পনা খারিজ করে দিয়েছেন তিনি নিজেই। তার বক্তব্য অনুসারে, নতুন কোনো দলে যোগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে তিনি তৃণমূলের মন্ত্রিত্ব পদ ছাড়ছেন এমনটা নয়। তিনি আরও একবার ক্রিকেট পিচে ফিরতে চান। তাই তৃণমূলের মন্ত্রিত্ব পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। তার এই ইচ্ছাকে সমর্থন জানিয়েছে দল এবং তৃণমূল নেত্রী তার দেখানো যুক্তির প্রতি মর্যাদা জ্ঞাপন করেই সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন বলে জানা গিয়েছে।