আপাতত স্বাস্থ্যকর্মীদের ক’রো’নার টিকা মিলছে না

চলতি বছরের শুরু থেকেই দেশজুড়ে গণহারে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে করোনা যোদ্ধা হিসেবে স্বাস্থ্যকর্মীরা টিকা পেয়েছেন। পরবর্তীকালে অবশ্য করোনা যোদ্ধা বাদেও অন্যান্যরা টিকা পাচ্ছেন। তবে এই টিকা বন্টন ব্যবস্থাতেও উঠে আসছে একাধিক অভিযোগ। যে কারণে স্বাস্থ্যকর্মীদের টিকা প্রদান কর্মসূচী আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

অভিযোগ, স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে অযোগ্যরাও স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে টিকা পাচ্ছেন। এমন বহু অভিযোগ উঠেছে যেখানে অযোগ্য ব্যক্তিরা স্বাস্থ্যকর্মী এবং চিকিৎসক হিসেবে টিকা নিচ্ছেন। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কার্যত স্বাস্থ্যকর্মীদের টিকা প্রদান কর্মসূচি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

কেন্দ্রের অভিযোগ, বিগত কয়েকদিনে টিকা করনের জন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের নামের তালিকায় ২৪ শতাংশ অতিরিক্ত নাম ঢুকেছে। যে কারণে করণা টিকা করন বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে। তাই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফ থেকে সম্প্রতি দেশের প্রতিটি রাজ্যে বিশেষ নির্দেশিকা পাঠিয়ে জানানো হয়েছে, করোনা টিকাকরণের জন্য স্বাস্থ্য কর্মীদের নামের তালিকায় আর নতুন করে নাম সংযোজন করা হবে না।

পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ আরও জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যকর্মীদের টিকা প্রদানের জন্য সময়সীমা আর বাড়ানো হবে না। এবার ৪৫-ঊর্ধ্ব ব্যক্তিদের করোনা টিকাকরণের জন্য রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়া শুরু করার নির্দেশ পাঠিয়েছে কেন্দ্র। প্রসঙ্গত দেশে এ পর্যন্ত ৭ কোটি ৪৪ লক্ষ মানুষ করোনার টিকা পেয়েছেন। এদের মধ্যে ৮৯ লক্ষ ৫৩ হাজার ৫৫২ জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন।