বুথের আশেপাশে আসতেই পারবে না রাজ্য পুলিশ, নজরদারিতে মোয়াতেন হবে শুধু কেন্দ্রীয় বাহিনী

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বুথ কেন্দ্রগুলিতে রাজ্য পুলিশের কোনো ভূমিকায় থাকবে না। নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে চলতি দফার নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র গুলির নিরাপত্তা রক্ষা প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপরেই সমস্ত দায়িত্ব থাকবে। বুথের ভেতরে কিংবা বাইরে রাজ্য পুলিশের থাকা চলবে না। বুথ থেকে একশো মিটার দূরত্বের মধ্যে কেবল কেন্দ্রীয় বাহিনীর সদস্যরাই উপস্থিত থাকতে পারবেন। এই মর্মে নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে নির্দেশিকা পৌঁছেছে রাজ্যে।

নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তের জেরে স্বভাবতই বিজেপি শিবির বেজায় খুশি। কারণ রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলেছিল বিজেপি। সেইসঙ্গে রাজ্য পুলিশের বিরুদ্ধেও ভোটে দখলদারির অভিযোগ আনা হয়েছিল বিরোধী শিবিরের তরফ থেকে। কমিশনের তরফ থেকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসারে স্বস্তিতে বিজেপি।

প্রসঙ্গত অন্যান্যবার ভোটের কাজে সুবিধার জন্য ভোট কেন্দ্রের ভেতরে রাজ্য পুলিশের অন্তত একজন সদস্যকে রাখা হয়েছে। তবে এবার সেই নিয়মে সম্পূর্ণ বদল এনেছে কমিশন। প্রসঙ্গত একুশের নির্বাচনে প্রথম দফায় জঙ্গলমহলে নির্বাচন সম্পন্ন হতে চলেছে। মাওবাদী অধ্যুষিত জঙ্গলমহলের ক্ষেত্রেই কেবল প্রতিটি ক্যুইক রেসপন্স টিমে এক সেকশন (৮ জন করে) কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং এক সেকশন রাজ্যের সশস্ত্র পুলিশ থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

কমিশনের এই সিদ্ধান্তে বিজেপি খুশি হলেও তৃণমূলের তরফে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে। সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীও কমিশনের এই সিদ্ধান্তে খুশি নন। তৃণমূলের পাশাপাশি তিনিও নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করেছেন।