যশ যেতে না যেতেই দীঘার সমুদ্রে স্নান করতে নে’মে ত’লি’য়ে গেলো দুই বন্ধু

ঘূর্ণিঝড়ের ফলে পুরো বিধ্বস্ত হয়ে গেছে দীঘা মন্দারমনি এবং গোটা তাজপুর। অনেক আগে থেকেই সরকার সর্তকতা জারি করে দিয়েছিলেন বলে এই বছর সেই ভাবে কোন নিহত অথবা আহতের খবর পাওয়া যায়নি। কিন্তু তার মধ্যেও জনপ্রিয় পর্যটন স্থলে ঘুরতে এসে শুধুমাত্র নিজের ভুলের জন্য সমুদ্রের জলের তলিয়ে গেল দুই বন্ধু।

পুলিশ সূত্র থেকে জানা গেছে, মৃত ওই দুই বন্ধুর নাম মোহাম্মদ মিদ্দা এবং মহিদুল নস্কর। দুজনেই রিলিভার একটি গ্রামের বাসিন্দা। সরকারের কড়া বাধানিষেধ থাকা সত্বেও তারা দিঘাতে ঘুরতে গিয়েছিলেন। সোমবার সি হক গোলাঘাট এর সমুদ্রে নেমে স্নান করার পরিকল্পনা করেন এই দুই বন্ধু। সেইমতো হোটেল থেকে পৌঁছে যান তারা সমুদ্র সৈকতে।

সমুদ্রসৈকতে তাদের জলে নামতে দেখে বারবার সতর্ক করেন নুলিয়ারা। কিন্তু তাদের কথায় কর্ণপাত করেনি এই দুই বন্ধু। তাদেরকে নামতে দেখে বারণ করেছিল পুলিশও। কিন্তু কারোর কোনো নিষেধাজ্ঞা মানতে নারাজ ছিলেন ওই দুই বন্ধু। অবশেষে সমুদ্রসৈকতে উপস্থিত সকলের নজর এড়িয়ে সমুদ্রে নেমে পড়েন ওই দুই বন্ধু। তারপরই যা হবার তাই হল। ঘটে গেল চরম বিপত্তি।

তাদের দুজনকে রক্ষা করতে পারেনি কেউ। পুলিশের তৎপরতায় মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। খবর দেওয়া হয়েছে তাদের পরিবারকে। ঘুরতে এসে এইরকম করুন পরিস্থিতির কথা জানাজানি হওয়ার পর শোকোস্তব্ধ তাদের বাড়ির লোকেরা। তবে এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ দোষ যে তাদের, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।