বার্ড ফ্লু কি পাকিস্তানী ও খালিস্তানীরা ছড়াচ্ছে দেশে? বিজেপিকে কটাক্ষ করলো শিবসেনা

করোনার দাপট এখনো নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হলো না, এরই মাঝে আবার দেশের বেশ কিছু রাজ্যে বার্ড ফ্লুয়ের আতঙ্ক মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। দিল্লি, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশের মতো অন্তত দশটি রাজ্যে ইতিমধ্যেই বার্ড ফ্লু মহামারীর আকার ধারণ করেছে। হাজার হাজার হাঁস, মুরগি, কাকের মৃত্যু হচ্ছে। বার্ড ফ্লুয়ের সংক্রমণের জেরে দেশে ডিম, মুরগির মাংসের ব্যবসা ব্যাপকভাবে মার খাচ্ছে।

দেশের এই পরিস্থিতিতেও কার্যত শিবসেনার আক্রমণের মুখে বিজেপি। শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’র সম্পাদকীয়তে বার্ড ফ্লু প্রসঙ্গকে হাতিয়ার করে কেন্দ্রীয় সরকারকে একহাত নেওয়া হয়েছে। বিরোধীদের প্রশ্ন, ভারতবর্ষে বার্ড ফ্লুয়ের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পেছনেও কি ভারত বিরোধীদের হাত রয়েছে? প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কৃষক আন্দোলনের নেপথ্যে খালিস্তানি, চিনা, নকশাল এবং মাওবাদী বিরোধীদের ষড়যন্ত্র আছে বলে দাবি করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার।

এ প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারকে কটাক্ষ করে শিবসেনার ওই মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, “কেন্দ্রের তরফ থেকে সরকারিভাবে দাবি করা হয়েছে পাকিস্তানি, খালিস্তানি, চিনা, নকশাল এবং মাওবাদীরাই কৃষক আন্দোলনের নেপথ্যে ইন্ধন যোগাচ্ছে। এদিকে তো কৃষক আন্দোলনের মাঝেই বার্ড ফ্লুয়ের সংক্রমণ দেখা দিয়েছে!” বিজেপিকে কটাক্ষ করেই শিবসেনার বক্তব্য, “বিজেপির মুখপাত্ররা এখনও জানাতে পারেনি ভারতে বার্ড ফ্লুয়ের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পেছনেও পাকিস্তানি, খালিস্তানি, চিনা, নকশাল এবং মাওবাদীদের হাত রয়েছে কি না!”

এই সম্পাদকীয়তেই বিজেপির প্রাক্তন জোটসঙ্গী শিবসেনা পোল্ট্রি ব্যবসাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা ভারতীয় অর্থনীতি নিয়েও নতুন কৃষি আইনকে কটাক্ষ করেছে। শিবসেনার বক্তব্য, কৃষি আইনে ডিম বিক্রেতাদের প্রসঙ্গে কোনো উল্লেখ নেই। তাহলে তারাই বা কৃষি আইনকে সমর্থন করবেন কিভাবে? পাশাপাশি, পোল্ট্রি ব্যবসাকে কেন্দ্র করে ভারতে যে অর্থনীতি গড়ে উঠেছে, বার্ড ফ্লু সংক্রমনের জেরে তাতে প্রভূত ক্ষতি হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে শিবসেনা।