শৈশব ফেরানোর জন্য যুগান্তকারী পদক্ষেপ রাজ্য প্রাথমিক স্কুলগুলিতে

প্রতীক ছবি

আমাদের ছোটবেলা কেটেছে কখনও কুমির ডাঙা কখনও রুমাল চোর কখনও লুকোচুরি আবার হাডুডু খেলার মধ্য দিয়ে, কিন্তু যত সময় বদলেছে ততই ইন্টারনেটের দুনিয়ায় এবং টিভির দুনিয়ায় চোখ আটকে গিয়েছে আর তাই তো সেই সমস্ত খেলা যেন অধরাই হয়ে গেছে। এখন শৈশব কাটে শুধুমাত্র টিভি কার্টুন বা টিভির গেম দেখে এবং মোবাইলে গেম খেলে।

তাই তো এবার রাজ্যে সমস্ত স্কুলে ছেলেমেয়েদের শৈশব ফেরানোর জন্য চালু হচ্ছে রুমাল চোর লুকোচুরি কানামাছি খেলা। জানা গিয়েছে প্রত্যেক দিন দুপুর একটা দশ থেকে একটা পঞ্চাশ মিনিট অবধি এই খেলাগুলির জন্য রাজ্যের প্রাথমিক স্কুলগুলিকে সময়সীমা দিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয় খেলা শেষে পড়ুয়াদের মিড ডে মিল দেওয়া হবে।

অর্থাত্ খেলার জন্য একটা আলাদা পিরিয়ড নিয়ে নেওয়া হচ্ছে, সে ক্ষেত্রে তিন পিরিয়ডের পর প্রথম খেলা তার পর মিড ডে মিল। আসলে আস্তে আস্তে সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্ত খেলা হারিয়ে গেছে তাই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান মানিক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন এই খেলাগুলি শুরু করার মধ্য দিয়েই বাড়ির মা দিদিমাদের নিজেদের ছেলে মেয়েদের এই হারিয়ে যাওয়া খেলাধুলা শেখাতে পারবেন এবং খেলায় উত্সাহ বাড়বে।

সব খবর পড়তে আমাদের WhatsApp গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন