অবশেষে বিজেপির রাজ্য সভাপতির নাম ঘোষণা

ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি পদে আসীন হলেন দিলীপ ঘোষ। এই দিলীপেই বিশ্বাস বাংলা বিজেপির। আগের থেকেই একটা নাদাজ করা গিয়েছিল যে ফের দিলীপ ঘোষই বসতে চলেছে এই আসনে। কিন্তু তাও এই নিয়ে জল্পনা ছিল তুঙ্গে। গত ১২ জানুয়ারী কলকাতায় ঘুরে গিয়েছে অমিত শাহের দূট ভুপেন্দ্র যাদব। সব বুঝে শুনে এই বিচারে আসা হয় যে ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতির আসনে বসতে চলেছে দিলীপ ঘোষ।

এই রাজ্যসভাপতির জন্য ১৫ জনকে বেছে নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সবার থেকে এগিয়ে সেই দিলীপ ঘোষ। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে মনোনয়ন জমা দেয় দিলীপ ঘোষ। আর অন্য কেউ মনোনয়ন জমা দেয় না তখন, কিন্তু সকাল ১১ টা পর্যন্ত সেই সময় ছিল। পরে বিজেপির মাধ্যমে জানা যায়, দিলীপ ঘোষকে আবার রাজ্য সভাপতি হিসেবে চায় দলের কোর কমিটি।

এদিকে অন্যান্য নেতারাও দিলীপ ঘোষকেই বেছে নেয় এই পদের জন্য। পরে সব হয়ে গেলে দিলীপ ঘোষ জানায়, আগের বার আমি সভাপতি হতে চায় নি, এবারও একই। নমিনেশন জমা দিয়েছি, আগামীকাল সম্পুর্ণভাবে জানা যাবে। আসলে দিলীপ ঘোষ হবে কিনা ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি, এ নিয়ে জল্পনা ছিল তুঙ্গে কারণ। দেখা গেছে দিলীপ ঘোষ যেসব কথা বলেছে, বিক্ষোভকারীদের গুলি করার কথা, ও আরও হুমকি মূলক।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

এইসবের পর তার সেই আসনে বসা নিয়ে একটু জোড় জলপনাই চলছিল দলের অন্দরমহলে। তবে সেই ফারা এখন কেটেছে বললেই চলে। তবে এদিন সভাপতি ঘোষণার বৈঠকে অনুপস্থিত ছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। কারণ বাবুল সুপ্রিয়র সাথে দিলীপ ঘোষের যে ঠান্ডা লড়াই চলছে তাতে তার অনুপস্থিতি আরও স্পষ্ট করে দেয়, এর অবসান এখনই হবে না বলে।