ইমরানকে ভারতে আসার আমন্ত্রণ জানাবে মোদী সরকার, কিন্তু কেন?

এবার ভারতের তরফ থেকে নাকি ইমরান খান মানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। হ্যা এটা বিশ্বাস না হলেও এটাই সত্যি। ভারত থেকেই আমন্ত্রণ করা হবে ইমরান খানকে। কারণ আগামীতেই ভারতেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে সাংহাই কর্পোরেশনের বৈঠক। আর এবার সেটা হতে চলেছে ভারতে। এখন সেখানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন কিনা, তা একেবারে ইসলামাবাদের নিজস্ব সিদ্ধান্ত।

কারণ আমরা সবাই জানি ভারতের সাথে পাকিস্তানের এখন আদায় কাচকলায় সম্পর্ক। সেই গত বনছরের ৫ ই আগষ্ট কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর থেকেই এমন সম্পর্ক তৈরী হয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে। তাছাড়া সুত্রের খবরে দৈনিক জানাই যাচ্ছে পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে হামলার কত না নতুন নতুন ছক কষছে। আর এর ফলেই দুই দেশের সম্পর্কে দিনের পর দিন বিভেদ সৃষ্টি হচ্ছে।

এবার তার মধ্যেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে ডাকা হবে এই অনুষ্ঠানের জন্য। আসলে এক প্রতিনিধি এই ব্যাপার নিয়ে বলেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। কিন্তু তার আসা না আসা পুরোটাই নির্ভর করছে ইসলামাবাদের ওপরে। এই বছরেই এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু তাও হাতে আছে অনেক দিন।

আসলে এই এস সিওর সদস্য হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান অনেক পরে, তারা ২০১৭ সালে তারা এই সংগঠনে যোগ দেয়। তার আগে এই সংগঠন করা হয়েছিল ২০০১ সালে। তখন সেখানে ছিল চিন, রাশিয়া, কাজাকাস্তান, তাজিকাস্তান, উজবেকিস্তান। যতবছর থেকে এই বৈঠক হয় তার মধ্যে প্রথম এটা ভারতে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে।

আসলে এই এসসিও গঠন করার পেছনে মূল লক্ষ্য হল ইউরেশিয় অঞ্চলে যাতে আর্থিক সহযোগিতা বৃদ্ধি করা যায়। এবার, বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এসসিওর মহাসচীবের সাথে বৈঠক সেড়ে ফেলেছে। আর তাদের বিভিন্ন আগাম পরিকল্পনা নিয়ে কথা বার্তা হয়েছে বলেও জানা যাচ্ছে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন