অবশেষে এক ধাক্কায় অনেকটা কমলো পেঁয়াজের দাম, খুশির হাওয়া মধ্যবিত্তদের

এবার আগের রুপে ফিরে এসেছে পেঁয়াজ। এখন কলকাতার বাজারে পাওয়া যাচ্ছে পেঁয়াজ ৫০ টাকা দরে। এই ৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ পুজোর আগে প্রায় সব জায়গায় পাওয়া যেতো।কিন্তু তার পরের থেকেই পেঁয়াজের দাম একেবারে আকাশ ছোঁয়া। তার পর থেকে যে পেঁয়াজের দাম বাড়া শুরু করেছে, আর কমার নাম নেই। এই পেঁয়াজ ১০০,১৫০ বাউন্ডারি ছুঁয়েছে এমনকি ২০০ রও।

কিন্তু এবার যখন পেঁয়াজ আবার নিজের ফর্মে ফিরে এসেছে, এতে মধ্যবিত্তের অনেকটা স্বস্তি। আসলে বিদেশ থেকে কেন্দ্র বর্তমানে ১৮ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানী করেছে। আর সেই পেঁয়াজ এখন বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। এখন পাইকারি পেঁয়াজ বিক্রেতারা বলছে নাসিক, বেলারি থেকে নিয়মিত পেঁয়াজ আসছে কলকাতার বাজারে, আর তার ফলেই পেঁয়াজের দাম আগের থেকে অনেকটাই কমে গেছে।

সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা গেছে, এখন বর্তমানে পেঁয়াজ পাইকারি হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে ২২-৩০ টাকার মধ্যে। সম্প্রতি কেন্দ্রের খাদ্য মন্ত্রী রাম বিলাস পাসওয়ান বলেছেন, এখন পেঁয়াজের দাম কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে, কারণ আমদানিকৃত পেঁয়াজ এখনও পর্যন্ত অর্ধেক বিক্রি হয় নি। এর ফলে পেঁয়াজ এখন পচে যাওয়ার জোগাড়। তাই এখন কম দামেই পেঁয়াজ পাইকারি হিসেবে বিক্রি করা হচ্ছে।

কলকাতার বাজারে এখন পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে ৫০-৫৫ টাকার মধ্যে। সাইজ হিসেবে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে বাজারে। পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, এই পেঁয়াজের দাম কমার পেছনে কারণ হল একটাই নাসিক, বেলারি থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজ আসা। এখনও পর্যন্ত কলকাতার বাজারে ৩৫ ট্রাক পেঁয়াজ এসেছে। আর সেই কারণেই পেঁয়াজের দাম আরও ক্রমে কমে যাচ্ছে।

কিন্তু এখানে একটা সমস্যা আছে। যখন এই পেঁয়াজ অনেক হাত বদল হয়ে সাধারণ মানুষের কাছে যায় তখন এর দাম আরও বৃদ্ধি পায়। এতে ক্ষতির মুখে পরতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। এর জন্য পাইকারি ব্যবসায়ীরা খুচরো ব্যবসায়ীদের দোষারোপ করছে। কিন্তু যদি সব নিয়েও দেখা যায় তাহলে আগের থেকে পেঁয়াজের দাম অনেকটাই কমেছে, কলকাতার বাজারে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন