কেন্দ্রকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে CAA নিয়ে বড়সড় পদক্ষেপ কেরল সরকারের

এবার প্রথম কোনও রাজ্য হবে যারা এই কাজ করে বসলো। এবার কেন্দ্রকে চ্যালেঞ্জ করে নাগরিকত্বের বিরোধিতা করতে সুপ্রিমকোর্টের দারস্থ হলেন কেরল। তারা এবার এই কাজ করে নজীর গড়লেন। কেন্দ্রের তরফ থেকে গেজেট নোটিফিকেশন জারি করে, এই আইন সারা দেশে লাগু হওয়ার কথা বলে কেন্দ্র। এবার তার বিরুদ্ধেই এমন কাজ করে বসলেন।

এদিকে শীর্ষ আদালতের কাছে নাগরিকত্ব আইন পাস হওয়ার পরের থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে এর বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। দেখা যায় মোট ৬০ টি আবেদন জমা পড়েছে সেখানে। কিন্তু এইসবের ভিত্তিতে সুপ্রিমকোর্ট ১৮ ডিসেম্বর শুনানিতে স্থগিতাদেশ জানায়, আর তার ফলেই সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে আজ এই আবেদনের যৌথ শুনানি হবে আদালতে।

এদিকে কেরল গত বছরের শেষের দিকে তাদের বিধান সভায় নাগরিকত্বের বিরোধিতা আইন পাস করিয়ে নেয়। সেখানে সবাই মানে বিজেপি বাদে সবাই এক হয়ে মত প্রদান করে। এবার তার ভিত্তিতেই তারা কাজ শুরু করে। কিন্তু এইসব দেখে কেন্দ্র বিবেচনা করে যে বিরোধীতার মাঝেই তারা তাদের কার্য শুরু করে দেবে। এখন কেরলের দেখা দেখি অনেক রাজ্যেই নাগরিকত্ব বিরোধী আইনপাশ করান্মোর জন্য সবাই ঝুকে পড়েছে, এদিকে তামিলনাড়ু, পুদুচেরি সব জায়গাতেই হয়ে গেছে বা তৈরী করার চিন্তা ভাবনা চলছে।

আসলে গত বছরের ১২ ডিসেম্বর বিল পরিণত হয় আইনে। আর তার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয় বিক্ষোভ, সব জায়গাতেই ছড়ায় হিংসা। এর ফলে সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা আতঙ্কের জন্ম নেয়। এখন এই সিএএ র ফলে বিক্ষোভ এতোটাই জোড়ালো হয়ে গেছে যে সেটা শিক্ষা প্রাঙ্গণ পর্যন্ত পৌছে গেছে।

এবার এইসবকে উপেক্ষা করেই কেন্দ্র তাদের কাজ করতে চাইছে, কিন্তু পরিস্থিতি যেনো হাতের বাইরে চলে না যায় তার কথাও চিন্তা করছে। এই নতুন সংশোধনী আইনে লেখা আছে যে যে সব অমুসলিমেরা ভারতের প্রতিবেশী দেশ থেকে ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর বা তার আগে এই ভারতে এসেছে, তাদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। আর এর পরেই শুরু হয় দেশ জুড়ে বিক্ষোভ।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন