বোর্ড সভাপতি হয়ে আড়াই মাসে কতটা সফল সৌরভ! দেখুন একঝলকে

ছবিঃ সংগৃহীত

অক্টোবরের ২৩ তারিখে বিসিসিআইয়ের সভাপতির আসনে বসেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। আর তিনি যখন থেকে সেই আসনে বসেছেন, সবাই অনেক আশা নিয়ে বসে আছে, যে এবার নতুন কিছু দেখার আশায়। কারণ তিনি যখন অধিনায়ক ছিলেন তখনও নতুনত্ব করতে ভালোবাসতেন, আর সেই নতুনত্বের জোড়েই ভারতীয় দল আজ এই আসনে। তো বোর্ড সভাপতি হওয়ার পরে পরেই তিনি নানাবিধ সিদ্ধান্ত নিয়েছে যা এর আগে কেউ তেমনভাবে গ্রহণ করে নি।

তিনি এসেই প্রথম গোলাপী বলের টেস্ট ম্যাচ শুরু করেছে, যা একেবারে আলোরণ ফেলে দিয়েছে সব জায়গায়। এদিকে আরেকটা কথা ভুললে একেবারে চলবে না, তিনি যখন সিএবির সভাপতি হন তখন বাংলার খেলায় এক আমূল পরিবর্তন নিয়ে এসেছিল। এবার তিনি বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট, আর তার ফলে ভারতীয় খেলায় যে নতুনত্ব দেখা যাবে না, এটা কি করে সম্ভব। তাই এখন সবাই মুখিয়ে আছে, কি পরিবর্তন করে, কি নতুনত্ব দেখা যাবে তার সিদ্ধান্তে।

তিনি এসেই এই গোলাপী টেস্টের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর সফল ভাবে সেটা তিনি করে দেখিয়েছেন। সেই টেস্ট আয়োজন তিনি এমন অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে যা গত কয়েকবছরে দেখা যায় নি। আর সেই টেস্ট দেখতে যে মানুষের ভীড় উপচে পরেছে, এটাই তার প্রমাণ দেয়, এই সিদ্ধান্ত কতটা সাফল্যমণ্ডিত হয়েছে। এদিকে তিনি প্রথমে এসেই বলেছে, ঘরোয়া ক্রিকেটের দিকে বেশী নজর দেবেন তিনি। আর তারফলেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সাথে যে ঘরোয়া ক্রিকেটেরও উন্নতিসাধন হবে তার স্পষ্ট।

এদিকে সৌরভ, ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার মতো শীর্ষদেশের দেশীয় টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথাও ভাবছে। আর এটা যদি সফল ভাবে হয় তাহলে আগামীতে তিনি আরও একধাপ উন্নীত হবে তার স্পষ্ট। তিনি অনেক বড়ো বড়ো সমস্যার সাধন হিসেবে কাজ করবে,এটাই সবার আশা।

কারণ কিছুদিন আগেই ধোনীর অবসর নিয়ে রবিশাস্ত্রী বলেছে, ওয়ানডে থেকেও কিছুদিনের মধ্যে অবসর নিতে চলেছে ধোনী। এবার সবাই আশা করছে এই মুহূর্তে সৌরভ এক নির্ণায়ক ভূমিকা পালন করবে। তাহলে বোঝাই যাচ্ছে এইসব যুগান্তকারী সিদ্ধান্তে সৌরভ কতটা বিশাল ভূমিকা গ্রহণ করছে।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন