‘সাতবছরে অনেক কেঁদেছি, এখন পাথর হয়ে গেছি, কারও কান্নাতেই গলব না’: নির্ভয়ার মা

সাতবছরে অনেক কেঁদেছি

টানা সাত বছর লড়াইয়ের পর অবশেষে নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত চার যুবকের ফাঁসির দিন ধার্য করল আদালত। 22 জানুয়ারি তারিখে সকাল সাতটায় নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্ত পবন গুপ্তা অক্ষয় ঠাকুর মুকেশ সিংহ ও বিনয় শর্মার ফাঁসির নির্দেশ দিয়েছে পাতিয়ালা হাউজ কোর্ট, তাই তো দিল্লির তিহার জেলের তরফে জোর কদমে প্রস্তুতি চলছে।

তাই এ বার সাত বছর পর নির্ভয়া কাণ্ডের রায় শুনে কিছুটা হলেও স্বস্তি পেয়েছে নির্যাতিতার পরিবার। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে নির্ভয়ার মা জানিয়েছেন সাত বছর ধরে কেঁদে কেঁদে তাঁর চোখের জল শুকিয়ে গেছে, তাই তো এখন কেউ যদি তাঁর কাছে কেঁদে ককিয়ে ক্ষমা চান তা হলে কখনওই তিনি বলবেন না। কারণ তাঁর মেয়ের সঙ্গে যা হয়েছে কখনই তিনি ভুলতে পারবেন না।

2012 সালের 16 ডিসেম্বর সেই অভিশপ্ত রাত যে রাতে দিল্লির রাজপথে ছয়জন অপরাধীর নক্কারজনক ঘটনার শিকার হয়েছিলেন বছর তেইশের এক প্যারা মেডিকেল ছাত্রীর। তার পর থেকেই দেশ জুড়ে শুধুই বিক্ষোভ আর শাস্তির দাবি। অবশেষে গত বছর চার অভিযুক্তের ফাঁসির সাজা শোনানোর পর তিহার জেলের তরফ থেকেই জোর কদমে ফাঁসির প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল কিন্তু ফাসুরে পাওয়া যাচ্ছিল না তবে জানা গিয়েছে উত্তরপ্রদেশ থেকে আনা হচ্ছে দুই জন ফাঁসুরেকেই।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন

এই ফাঁসির মঞ্চে ফাঁসি দেওয়া হবে চার অভিযুক্তকে তাই তো তিহাড় জেলে নতুন ফাঁসি কাঠ তৈরি হয়ে গিয়েছে। আসলে আদালতের তরফে যখন সাজা ঘোষণা হয়েছিল ঠিক তখনই এক দোষীর মা নিজের ছেলের জন্য প্রাণ ভিক্ষা চেয়েছিলেন নির্ভয়ার মায়ের কাছে কিন্তু তিনি সরাসরি সাত বছর আগে তাঁর মেয়ের সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে তা কখনই তিনি ভুলতে পারবেন না বলেই জানান এবং ক্ষমা করতে পারবেন না।