পুরোহিতের বদলে রবীন্দ্রসঙ্গীত দিয়ে শুভ বিবাহ সুসম্পন্ন, ভাইরাল ভিডিও

পুরোহিতের বদলে রবীন্দ্রসঙ্গীত দিয়ে শুভ বিবাহ সুসম্পন্ন

বিয়ে মানে কি, আমরা যদি সহজ সরল ভাষায় ব্যাক্ত করি তাহলে বলব, দুই মনের মিলন। আর এই দুই মনের মিলনের পরেও যদি অন্য কথা বলতে হয় তাহলে বলতে হবে এটা এমন এক অনুভূতি যা একেবারেই ভোলার নয়। এটা এমন একটা স্মরণীয় দিন, যা ৪০-৪৫ বছর পরেও মনের মধ্যে ফুটে ওঠে। এবার সেই বিয়েকে আমরা চাই যেভাবেই হোক নিজেদের সাদ্য মতো স্মরনীয় করে তোলার জন্য।

আমরা বিয়ের আসরে মানুষের যেমনই মিশ্র প্রতিক্রিয়া হোক না কেনো, কিন্তু বিয়ের অনুভূতিটাই আলাদা। আমরা সাধারণত বাঙ্গালী মতে বিয়ে বলতে যা বুঝি পুরোহিতের মন্ত্রোচ্চারণ, সাথে সেই সানাইয়ের সুর, যা বিয়ের সেই আসরে উপস্থিত থাকা মানুষের মনকেও আনন্দে ভড়িয়ে তোলে। কারণ বাঙালী বিয়েতে থাকে অনেক রীতি, সেটা অধিবাস, গায়ে হলুদ থেকে শুরু করে দ্বিরাগমন পর্যন্ত।

সেখানে প্রায় সব জায়গাতেই পুরোহিতের উপস্থিতি বিদ্যমান। কিন্তু এখন দিনের সাথে সাথে বিয়ের অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। তবে এমন কি কোথাও শুনেছেন যে পুরোহিত ছাড়াই বিয়ে হয়। হ্যা এমনটা আমরা অনেক শুনেছি ছেলে পুরোহিতের জায়গায় মেয়ে পুরোহিত। কিন্তু এবার একেবারে পুরোহিত ছাড়াই বিয়ে। আর সেখানে এখন রবীন্দ্র সঙ্গীত।

বিশ্বাস না হলে এটাই সত্যি। পুরোহিতের বদলে এবার রবীন্দ্র সঙ্গীত বাজিয়েই বিয়ে সম্পন্ন হল। সম্প্রতি একটি ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বিয়ের আসরে নেই পুরোহিত। আর সেখানে রবীন্দ্র সঙ্গীত গেয়ে করানো হচ্ছে বিয়ে। তাহলে বোঝাই যাচ্ছে মানুষ এখন কতটা পরবর্তন শীল।

এতে প্রমাণ করা হয় এটাই হয়ত, মন্ত্র নিয়ে বেধে ফেলা হবে নারী ও পুরুষকে যাতে তারা আজীবন সেই বেড়াজালে বন্দি থাকে সর্বদা। কিন্তু এখন তেমন নয়, এর মাধ্যমে একটা কথাই প্রকাশ হয় সেটা হল, মনের মিলন। সেটা যদি দুজনের মধ্যে থাকে তাহলে সেখানে মন্ত্রের কোনও দরকারই হবেনা, রবীন্দ্র সঙ্গীতই যথেষ্ট।

সমস্তরকম এক্সক্লুসিভ খবর পেতে লাইক করুন